জাতীয় পরিচয়পত্র বা NID আবেদন করার ক্ষেত্রে কি কি লক্ষ রাখবেন?

0

এনআইডি হালনাগাত নতুন করে শুরু হয়েছে। তাই যারা নতুন ভোটার হবেন তাদেরকে অবশ্যই কিছু বিষয় লক্ষ রাখতে হবে। কেননা আবেদন করার সময় যদি ভুল করেন কিংবা একবার এনআইডি ভুল হয়ে গেলে তা পরবর্তীতে সংশোধন করা অনেক ঝামেলার কাজ। তাই নতুন ভোটার হওয়ার সময় সতর্ক থাকুন, আপনার ভোটার আইডিতে যাতে কোন ভুল তথ্য ইনপুট না হয়। জাতীয় পরিচয়পত্র বা NID আবেদন করার ক্ষেত্রে কি কি লক্ষ রাখবেন? এই বিষয়ে আজকের এই ইনফোটি শেয়ার করা হলো।

জাতীয় পরিচয়পত্র বা NID আবেদন করার ক্ষেত্রে কি কি লক্ষ রাখবেন?


আপনার যদি শিক্ষাগত সনদ থাকে তাহলে সেই সনদ অনুযায়ী ভোটার আবেদন করবেন। বিশেষ করে শিক্ষা সনদে বা সার্টিফিকেট এ যেভাবে নামের বানান দেওয়া আছে সেই ভাবেই আবদেন করবেন।


এনআইডি সংক্রান্ত এগুলো পড়তে পারেন...

ভোটার হওয়ার নতুন নিয়ম

অনলাইন থেকে ভোটার আইডি ডাউনলোড করার নিয়ম

ভোটার আইডি সংশোধন করার নিয়ম

বিদেশে থাকলে NID করার নিয়ম

এনআইডি ওয়ালেট অ্যাপ কিভাবে ব্যবহার করবেন?

ভোটার আইডি চুরি হলে করণীয় কি?

ভোটার আইডি খরচ কত?


ভোটার আবেদন করার সময় কি কি লক্ষ রাখবেন?

বর্তমানে ভোটার হওয়ার জন্য জন্ম সনদ বাধ্যতামূূলক। তাই জন্ম সনদ না থাকলে কিংবা ভুল থাকলে তা সংশোধন করে নিন আগে। 

জন্ম সনদ এবং সার্টিফিকেট এর তথ্য মিল আছে কিনা যাছাই করুন। যদি মিল না থাকে তাহলে সার্টিফিকেটকে প্রাধান্য দিন। বিশেষ করে আপনার জন্ম তারিখ। কেননা সার্টিফিকেট পরিবর্তন করতে পারবেন না। আর পারলেও তা অনেক কষ্টের।

এছাড়াও জন্ম তারিখ কিংবা অন্য কোন ভুল হওয়ার কারণে অনেকের সরকারি চাকরি হারাতে হয়। তাই আপনার ভোটার আইডিতে যাতে তথ্যগত কোন ধরণের ভুল না থাকে।


কিভাবে আবেদন ফরম পূরণ করবেন?

অনলাইনে যদি আবেদন করেন তাহলে ফরমের ঘরগুলো সঠিক তথ্য দিয়ে পূরন করুন। কিভাবে অনলাইনে ভোটর হবেন সেই বিষয়ে আগেই একটি ইনফো শেয়ার করা হয়েছে সেটি দেখে নিতে পারেন।

আর নিজে পূরণ করতে না পারলে যিনি ভাল জানেন তার সাহায্য নিয়ে পূরণ করুন। ফরম জমার দেওয়ার সময়, ডাটা ইন্ট্রি অপারেটর যে স্বীকারোক্তিতে স্বাক্ষর নেয় তার মধ্যে তথ্যগুলো সঠিক আছে কিনা যাচাই করে নিন।

কোন তথ্য ভুল হলে অবশ্যই সংশোধন করে নিন। মনে রাখবেন, নামের পদবি যেন সব ক্ষেত্রে একই থাকে। মোঃ লেখার ক্ষেত্রে কোন জায়গায় মোঃ এবং অন্য জায়গায় মোহাম্মদ লেখাও ভুল হিসাবে গণ্য করা হয়।

তাই জন্ম সনদ, সার্টিফিকেট ও ভোটার আইডিতে যে সকল নাম একই রকম হয়ে থাকে সেই বিষয়ে খেয়াল রাখুন।


অন্যান্য ইনফো জানুন






একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)


#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !