লিংকডইন (LinkedIn) কি? কিভাবে LinkedIn প্রোফাইল আকর্ষণীয় করে তুলবেন?

0

 পেশাজীবিদের জন্য খুবই জনপ্রিয় একটি সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট হচ্ছে লিংকডইন (LinkedIn)। আজকের ইনফোটিতে আমরা এই জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া সম্পর্কে আলোচনা করেছি। এই সম্পর্কে জানতে লেখাটি শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

লিংকডইন (LinkedIn) কি? কিভাবে LinkedIn প্রোফাইল আকর্ষণীয় করে তুলবেন?


লিংকডইন (LinkedIn) কি?

বাংলাদেশে খুব বেশি জনপ্রিয় না হলেও বৈশ্বিকভাবে খুবই জনপ্রিয় একটি সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট হচ্ছে লিংকডইন (LinkedIn)। তবে এটি একটি ফেসবুকের মতোই সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট। এর নামটি বিশ্লেষণ করলে যা বুঝা যায় প্রায় কাজটিও তার একই রকম। যেমন- LinkedIn = link+in, "in" মানে ভিতরে এবং "link" মানে সংযুক্তি বা সংযোগ। ওটার মানে কি? ভিতরে গেলে লিংকডইন বলা হয়, নাকি? হ্যাঁ, এটা ঠিক, লিঙ্কডইন অনেকটা এরকম। 

লিঙ্কডইন অনেকটা ফেসবুকের মতো। আপনি যেমন ফেসবুকে কোথায় খাচ্ছেন এবং ভ্রমণ করছেন তা শেয়ার করতে পারেন, আপনি কোথায় কাজ করছেন, আপনি কী করছেন, সম্প্রতি কী করেছেন ইত্যাদি লিঙ্কডইনে নোট প্রকাশ করতে পারেন। LinkedIn এর মাধ্যমে নিজেকে পরিচয় করিয়ে দিতে পারে পেশাদার হিসাবে। মনে রাখবেন, আপনার নিজের ড্রামটি আপনাকেই মারতে হবে, আপনি যদি অন্যের ঢোল পিটান তবে তারা এটি বাজাতে গিয়ে ভেঙে দেবে।

(ads1)


কেন আপনি LinkedIn ব্যবহার করবেন?

1. LinkedIn বর্তমানে পেশাদারদের জন্য বৃহত্তম সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। এটিতে যখন পুরো বিশ্ব এগিয়ে যাচ্ছে, তখন আপনি পিছিয়ে থাকবেন কেন?এছাড়াও  আর কোথায় পাওয়া পাবেন একসাথে  এক জায়গায় ৪০০ মিলিয়ন চাচা, খালা, মামা?

2. লিঙ্কডইন একটি বিশ্বব্যাপী যোগাযোগের মাধ্যম। LinkedIn এর মাধ্যমে বিশ্বের যেকোন প্রান্তের যে কোন কোম্পানির যে কোন ব্যক্তিকে খুঁজে পাওয়া সম্ভব।

3. উন্নত দেশগুলিতে, অনেক লোক LinkedIn এর মাধ্যমে তাদের পছন্দের কাজ পাচ্ছে।

4. ওয়েবসাইটে লিঙ্ক করার মাধ্যমে আপনি LinkedIn-এ সমস্ত চাকরির বিজ্ঞপ্তি পাবেন।

5. লিঙ্কডইন স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনাকে বলবে যে কোন চাকরির জন্য আপনাকে আসলে আবেদন করতে হবে৷

6. আপনার ভাল কাজের জন্য আপনাকে আপনার সহকর্মী বা বস দ্বারা সুপারিশ করা যেতে পারে যা আপনাকে পরবর্তী কাজ পেতে অনেক সাহায্য করবে।

7. যদি কেউ LinkedIn-এ আপনার কোনো পোস্টে লাইক, শেয়ার বা মন্তব্য করে, তাহলে এটি তাদের প্রোফাইলে সংযুক্তদের হোমপেজে যাবে। অনেকের কাছে তাদের ভালো কাজের কথা প্রচার করার জন্য LinkedIn এর বিকল্প নেই।

8. লিঙ্কডইন ব্যবহার করে আপনি অনেক বহুজাতিক কোম্পানিতে সরাসরি আবেদন করতে পারেন।

9. আপনি যদি দেশীয় এবং বহুজাতিক কোম্পানির পেজ বা গ্রুপ অনুসরণ করেন, তাহলে তাদের আপডেট পাবেন।

10. কোথাও আবেদন করার সময়, আপনি LinkedIn-এ কোম্পানি সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য পাবেন, যেমন- কোম্পানিতে কারা কারা কাজ করছেন, কত জন কাজ করছেন ইত্যাদি।


কিভাবে লিংকডইন (LinkedIn) একাউন্ট তৈরি করবেন?

সাধারণত আমরা যেমন - অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ার একাউন্ট খুলে থাকি, ঠিক সেরকম ভাবেই একাউন্ট খুলতে হয়। তবে মনে রাখবেন একটা প্রফেশনাল মানের LinkedIn প্রোফাইল ১০০% সম্পূর্ণ করা জন্য নিচের বিষয়গুলো বিবেচনা করবেন।

    ** প্রোফাইলে নিজের ছবি : অবশ্যই নিজের ছবি ব্যবহার করবেন।

    ** সঠিকভাবে কাজের তথ্য এবং নিজের ঠিকানা দেওয়া এবং সেগুলো নিয়মিত আপডেট রাখা : সকল তথ্য হালনাগাদ করে রাখবেন।

    ** আগের কাজের অনন্ত দুটি ক্ষেত্র যুক্ত করা : না থাকলেও পরবর্বীতে যুক্ত করে আপডেট করবেন।

    ** নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা সঠিকভাবে তুলে ধরা: এটা অবশ্যই আপডেট রাখবেন।

    ** কমপক্ষে তিনটি কাজের দক্ষতা তুলে ধরা : আপনার কাজের দক্ষতা সুন্দরভাবে প্রকাশ করুন।

    ** কমপক্ষে ৫০ টির বেশি কানেকশান যুক্ত করুন ইত্যাদি।


বিঃদ্রঃ আপনি যদি লিংকডইন (LinkedIn)থেকে আপনার মনের মতো জব পেতে চান তাহলে আপনার প্রোফাইল আকর্ষণীয়ভাবে উপস্থাপনা করুন।

(ads2)


কিভাবে LinkedIn প্রোফাইল আকর্ষণীয় করে তুলবেন?

মনে করুন, আপনি একটি ভাল জবের জন্য যেভাবে একটি সিভি তৈরি করেন ঠিক একই ভাবে আপনার লিংকডইন (LinkedIn)প্রোফাইল আকর্ষণীয় করুন। কিভাবে LinkedIn প্রোফাইল আকর্ষণীয় করে তুলবেন? তা আপনি নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করে আপডেট করতে পারেন।


1. সারাংশ: LinkedIn প্রথমে আপনার সম্পর্কে জানতে চায়। আপনার কাজ এবং আপনি কি জানেন বা করতে চান তার মাধ্যমে নিজেকে পরিচয় করিয়ে দিন। একটি মিশন এবং দৃষ্টি বিবৃতি লিখুন। লিঙ্কডইন আপনাকে আপনার যেকোনো ভিডিও ব্লগ, নথি, উপস্থাপনা আপলোড করতে দেয়। আপনি এখানে আপনার সিভি আপলোড করতে পারেন।


2. অভিজ্ঞতা: ঠিক যেমন আপনি আপনার সিভি তৈরি করেছেন। সিভি থেকে অভিজ্ঞতা সিলেক্ট করে কন্ট্রোল সি এবং কন্ট্রোল ভি- বাটন ক্লিক করে কপি এবং পেস্ট করুন৷ এই ক্ষেত্রেও, লিঙ্কডইন আপনাকে নথি, ছবি, ভিডিও ইত্যাদি যোগ করার সুযোগ দেয়৷ কোনও কোম্পানির গোপনীয় তথ্য প্রকাশ করা হয় না৷ তবে ধরুন আপনি একটি প্রশিক্ষণ করেছেন বা পরিচালনা করেছেন, আপনি একটি উপস্থাপনা দিয়েছেন, প্রকাশিত নিবন্ধ, ভিডিও, আপনার সংস্থার যে কোনও বৈশিষ্ট্য এখানে আপলোড করা যেতে পারে। সিভিতে এই সুযোগ নেই। আপনার যদি একাধিক কোম্পানিতে কাজের অভিজ্ঞতা থাকে তবে প্রতিটি ক্ষেত্রে একই পদ্ধতি অনুসরণ করুন।


ফ্রেশাররা ইন্টার্নশিপ, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ভিজিট, মেম্বারশিপের মাধ্যমে অভিজ্ঞতার ঘর পূরণ করে। সহপাঠ্যক্রমিক কার্যক্রমের মাধ্যমে আপনার কাজের অভিজ্ঞতা প্রদর্শন করুন। একটি চাকরির জন্য স্বেচ্ছাসেবক বা কিছু দিনের জন্য একটি কোম্পানির প্রতিনিধিত্ব করেছেন। তাও লিঙ্কডইনে রাখার সুযোগও রয়েছে।


3. অনুমোদন: এটি একটি ভোটের মত। আপনি এখানে আপনার 50টি দক্ষতার নাম দিন। LinkedIn আপনার সেরা 10 দক্ষতা দেখাবে। আপনি যাদের সাথে সংযুক্ত আছেন তারা আপনাকে বলবেন যে আপনি যে দক্ষতার কথা উল্লেখ করেছেন তাতে আপনি কতটা ভালো। LinkedIn-এ অনুমোদন বাড়াতে ভুলবেন না যাতে অন্যরা আপনার প্রোফাইল দেখতে পায় এবং আপনার দক্ষতা সম্পর্কে ধারণা পায়। ধরুন আমি একজন প্রশিক্ষক। 

এখন আপনি যদি আমাকে একজন প্রশিক্ষক হিসাবে সমর্থন করেন, অন্য কেউ যখন আমার প্রোফাইল দেখেন, তখন তারা ধারণা পাবেন যে আমি একজন প্রশিক্ষক। কারণ আপনি আমাকে প্রশিক্ষক হিসেবে প্রত্যয়িত বা অনুমোদন দিয়েছেন।


4. শিক্ষাগত যোগ্যতা: সিভি থেকে একে একে সবগুলো নির্বাচন করুন। আপনি চাইলে সার্টিফিকেট স্ক্যান করে যোগ করতে পারেন। পেশাদার সার্টিফিকেট যোগ করা ভালো।


5. প্রকাশনা: যদি কোন নিবন্ধ, কোন জার্নাল প্রকাশিত হয়, দয়া করে লিঙ্ক সহ দিন। মজার বিষয় হল, আপনি যখন আপনার প্রোফাইল সেট আপ করছেন তখন লিঙ্কডইন নিজেই আপনাকে অনেক নির্দেশনা দেবে।


6. প্রশিক্ষণ: সিভি থেকে একে একে প্রশিক্ষণ যুক্ত করুন। আপনার কোন কোর্স থাকলে তা যোগ করুন।


7. পরীক্ষার স্কোর: GRE, IELTS, TOEFL পরীক্ষার স্কোর প্রদান করা যেতে পারে। এখানে আপনি সার্টিফিকেটও যোগ করতে পারেন।


8. পুরস্কার: আপনি চাকরি ছাড়াও কিছু কাজের জন্য পুরস্কৃত হতে পারেন। যে কোন সমাজসেবামূলক কাজ, কোন খেলাধুলা, স্কাউট, বিতর্ক ইত্যাদি উল্লেখ করতে পারেন। চাকরিতে প্রাপ্ত পুরষ্কার সম্পর্কে অভিজ্ঞতা বিভাগে লিখলে ভাল হয়।


9. প্রকল্প: আপনি একটি পণ্য চালু করেছেন, কোম্পানিতে একটি নতুন মেশিন ইনস্টল করেছেন, একটি ইভেন্টের ব্যবস্থা করেছেন। এর প্রতিটিই একটি প্রকল্প। এই সকল তথ্য সাবলীলভাবে উল্লেখ করুন। মনে রাখবেন, দৈনন্দিন কাজগুলি প্রকল্প নয়। প্রকল্পগুলির একটি শুরু এবং একটি শেষ তারিখ থাকে এবং প্রকল্প অনন্য হয়।


10. সার্টিফিকেশন: ধরুন আপনি একটি ক্লাবের সদস্য, একটি দলের সভাপতি৷ আপনি এখানে সেই সার্টিফিকেট উপস্থাপন করতে পারেন।


11. পেটেন্ট: আপনার কাছে যে কোনো নতুন ধারণা যা আপনার বা আপনার কোম্পানির জন্য দুর্দান্ত সাফল্য এনেছে, সেগুলি এখানে উল্লেখ করুন। আপনি কোম্পানিতে একটি নীতি তৈরি করতে পারেন, যা আগে ছিল না।


আরো জানুনঃ

ই-কমার্স কি? কিভাবে ই কমার্স ওয়েবসাইট খুলবেন?

উইকিপিডিয়া কি?

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং সম্পর্কে কি জানেন?

আপনার প্রিয় মানষটির নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হলে গুগল ম্যাপে ট্রাক করবেন কিভাবে?

টিকটক কি? Tik Tok এ কিভাবে আয় করবেন?

ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল কি?

হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট কিভাবে সুরক্ষা রাখবেন?


শেষকথাঃ

আশাকরি লিংকডইন (LinkedIn) কি? এবং কিভাবে একটি আকর্ষণীয় প্রোফাইল তৈরি করবেন? ইত্যাদি ধারণা পেয়েছেন। এর জন্য প্রথমে সিভি তৈরি করুন, তারপর লিঙ্কডইন, তারপর জব পোর্টালে সিভি আপলোড করুন। আপনার LinkedIn প্রোফাইল সর্বজনীন করুন। 

আমাকে চাকরি দাও, চাকরি দাও বলে নিজেকে চিৎকার না করে একটি আকর্ষণীয় উপায়ে আপনার কাজ প্রদর্শন করুন। আপনার কাজ আপনার জন্য সুপারিশ করবে।  

সময়ের অগ্রযাত্রা এবং যুগের দাবিকে চ্যালেঞ্জ করবেন না, মোকাবেলা করুন। ধৈর্য সহকারে লেখাটি পড়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)


#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !