ফেসবুক আয়: What is Facebook Instant Articles? ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল কি?

0

 ফেসবুক আয় করার মাধ্যম গুলোর মধ্যে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল অন্যতম। আজকের ইনফোটিতে What is Facebook Instant Articles: ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল কি? এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য তুলে ধরা হলো।

আমরা জানি বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হচ্ছে ফেসবুক। আর এই ফেসবুককে ঘিরে গড়ে ওঠেছে অনেক ধরণের ব্যবসা। ফেসবুকও আয় করার সুযোগ দিচ্ছে ওয়েবসাইট মালিকদের।

ফেসবুক ইন্সট্যান্স আর্টিকেল ফেসবুক থেকে আয় করার একটি অন্যতম মাধ্যম। শুধু সংবাদ মাধ্যম নয় কন্টেনভিত্তিক যে কোন ওয়েবাসইটের মালিক ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল যুক্ত করে আয় করতে পারেন।

ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল ইনফো জানুন
ছবি: অনলাইন থেকে নেওয়া

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল কি?

শুধু মাত্র সংবাদ মাধ্যম ওয়েবসাইট নয়, কন্টেনভিত্তিক যে কোন ওয়েবসাইট পরিচালনার খরচ দিবে বিশ্বির সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এই টেক জায়ান্ট কোম্পানীটি।

ফেসবুকের জনপ্রিয় একটি টুল হচ্ছে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল। এই টুলটির সাহায্যে ওয়েবসাইট পোস্টগুলো ফেসবুকে দ্রুত গতিতে শেয়ার ও লোডিং হবে। ফলে ফেসবুক ব্যবহারকারীদে সময় অপচয় রোধ হবে।

ফেসবুকের ভাষায় বিদ্যুতের গতিতে আর্টিকেল লোড হবে এই টুলটির সাহায্যে। ফলে ফেসবুক ব্যবহারকারী আপনার ওয়েবসাইটের আর্টিকেল পড়তে স্বাচ্ছন্দবোধ করবে। শুধু তাই নয় এই সার্ভিস ব্যবহারকারীকে ফেসবুক অর্থও দিবে।

আরো খোলসা করে বলা যায় এভাবে, মনে করুন আপনার একটি ওয়েবসাইট এবং একটি ফেসবুক পেজ আছে। ওয়েবসাইটের আর্টিকেলগুলো ফেসবুক পেজে শেয়ার করে থাকেন।

এখন আপনি যদি ফেসবুকের ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল টুলটি ব্যবহার করেন, তাহলে স্বয়ংকিয়ভাবে আপনার ওয়েবসাইটের আর্টিকেল ফেসবুকে শেয়ার হবে এবং ব্যবহারকারী ক্লিক করার সাথে সাথে খুবই দ্রুত ফেসবুকেই আর্টিকেলটি লোড হবে। 

ব্যবহারকারীকে আপনার সাইটে আসতে হবে না।


আরো জানুন:






কেন ফেসবুক কর্তপক্ষ এই ফিচারটি চালু করেছে?

নিজদের সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে ব্যবহারকারীদে র আরো বেশি সময় ধরে রাখতে, দ্রুত সাইটে প্রবেশ করতে, নিউজ কিংবা কন্টেভিত্তিক ওয়েবসাইটগুলোকে ফেসবুক মুখী হওয়া, বিজ্ঞাপনদাতার টার্গেটকৃত লোকজন ধরা এবং ওয়েবসাইট মালিকদের সাথে রেভিনিউ শেয়ার করার জন্য ফেসবুক এই ফিচার চালু করেছে।

ফেসবুকের এই ফিচার গ্রহণ করে আপনার অফিস পরিচালনার খরচসহ কর্মচারী বেতন ও অন্যান্য ব্যায় বহন করে নিতে পারেন।

মূলত ফেসবুক চায় যাতে ইউজাররা ফেসবুকে অধিক সময় ব্যয় করে এবং সামাজিক যোগাযোগ রক্ষা করার পরও যেন তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য ফেসবুক থেকেই নিতে পারে। 

বর্তমানে ফেসবুকে শুধু যোগাযোগ ও বিনোদন নয় অনলাইনের প্রায় সবকিছুই সেবা চলে এসেছে। ব্যবসার ক্ষেত্র হিসাবে ফেসবুক দিন দিন এগিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে আমাদের দেশে ফেসবুক মার্কেটিং ব্যবসার জন্য বড় ভুমিকা রাখছে।

ফেসবুকের ইন্সট্যান্ট ফিচার পেতে কি কি প্রয়োজন?

* আপনার ওয়েবসাইটের জন্য একটি ফেসবুক পেজ তৈরি করে নিতে হবে। (বর্তমান সময়ে নতুন পেজে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল যুক্ত করা অনেকটা কঠিন হয়ে গেছে। তবে পুরানা পেজ হলে সহজেই একটিভ হয়ে যায়।)

* সাইটে নিয়মিত লেখা প্রকাশ করতে হবে।

* ফেসবুক ইন্সট্যান্ট ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন প্রয়োজন হবে। (ওয়ার্ডপ্রেস এর ক্ষেত্রে)

* আপনার ব্যাংক একাউন্ট প্রয়োজন হবে। আপনার অর্জিত আয় এই ব্যাংক একাউন্টে প্রদান করা হবে।

ফিচারের সুবিধাসমূহ কি কি?

এই ফিচারটি ফেসবুক ব্যবহারকারীদের খুবই চমৎকার অভিজ্ঞতা দেয়।এই ফিচারের মাধ্যমে ফেসবুকে শেয়ার করা পোস্টের কোন লিংক ক্লিক করে একজন ব্যবহারকারী বুঝতেই পারবে না যে, ওয়েবসাইটের কনটেন্ট ওপেন করছে।

এত দ্রুত লোড হবে যে, মনে হবে ডিভাইসে সেভ করা কোন ফাইল ওপেন হচ্ছে। এই ফিচারের সুবিধাগুলো হচ্ছে-

** আর্টিকেল অতি দ্রুত লোড হওয়া। (ফেসবুকের ভাষায় ঝরের গতিতে লোড হবে)

** আর্টিকেল ক্যাস থাকবে ফলে পুনঃরায় লোড হওয়ার জন্য ক্যাস থেকে লোড হবে।

** ফেসবুক পেজে আর্টিকেলের স্ট্যাটিকস পওয়া যাবে।

** মনিটাইজেশন যুক্ত করে আয় করতে পারবেন।

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের কিছু অসুবিধা

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের অনেক সুবিধা থাকলেও কিছু অসুবিধা রয়েছে। যেমন- সাইটের উইজেট, ওয়ার্ডপ্রেস অনেক শর্টকোড এতে কাজ করে না।

যে আর্টিকেলেগুলোতে অধ্যাধিক ছবি কিংবা ভিডিও যুক্ত থাকে সে সাইটে ফেসবুকের এই ফিচার তেমন ভাল ফল বয়ে আনে না।

মূল সাইটের ভিজিটর কমে যাবে তবে সাইটের র‌্যাঙ্ক কমবে না।


আরো জানুন:



কি ধরণের সাইটে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল যুক্ত করা সুবিধাজনক?

যদিও সাইটে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল দ্রুত লোড হয় এবং এটি যুক্ত করে ইনকাম করা যায় তবুও তা সকল সাইটের জন্য সুফল বয়ে আনে না।

আপনার সাইট যদি টিউটোরিয়াল বিষয় হয়। যেখানে আপনি অনেক ছবি ও ভিডিও শেয়ার করে থাকেন। এরকম সাইটে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল যুক্ত করা সুবিধাজনক নয়।

কেননা সকল ছবি বা ভিডিও সবসময় ভালমত কাজ করে না। এছাড়াও উইজেট ও শর্টকোড ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলে ঠিকমত কাজ করে না।

তাই আপনার সাইটে যদি ছবি কিংবা ভিডিও গুরুত্বপূর্ণ কিংবা মূখ্য বিষয় না হয়ে থাকে তাহলে ফেসবুকের এই ফিচারটি আপনার জন্য সুবিধাজনক।

সাধারণত নিউজ টাইপের সাইটগুলোতে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

যেভাবে শুরু হয় ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল সুবিধা

অনেক অনলাইন ইউজার সংবাদ মাধ্যমের সাথে যুক্ত হতে চায়। এজন্য তারা ফেসবুক থেকে বেড়িয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে।

সংবাদ মাধ্যমে ব্যবহারকারীর আগ্রহ দেখে ফেসবুকও সংবাদের সাথে যুক্ত হওয়ার চেষ্ঠা অব্যাহত রাখে।

২০১৫ সালে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাগারবার্গ বেশ কিছু সংবাদ মাধ্যমকে খবরের লিংক ফেসবুকের হোস্টিং সেবা নিতে সরাসরি প্রস্তাব দেন।

তখন নাম করা কিছু সংবাদ মাধ্যম ফেসবুকে সরাসরি ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের সুযোগ পায়।

এরপর ২০১৬ সালে ১২ এপ্রিল ফেসবুবের এই সেবাটি সবার জন্য উন্মুক্ত করা হয়। শুরুতেই কপিরাইট গুহণ করলেও এখন আর অনুমোদন দেয় না এবং অতীতের গুলো বাতিল করে দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুকের এই সেবাটি মূলত মোবাইল ফোন থেকে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা বদলে দেওয়ার জন্যই।

অন্য যেকোন সময়ের চেয়ে দ্রুত গতিতে ( ফেসবুকের ভাষায় বিদ্যুতের গতিতে) যে কোন খবর পড়তে পারবেন  একজন ব্যবহারকারী। নাম শুনেই বুঝা যাচ্ছে এই ফিচারটির মূল বৈশিষ্ট হচ্ছে তাৎক্ষনিকতা।

অর্থাৎ কোন ব্যবহারকারী পছন্দমত কোন খবরের লিংকে ক্লিক করা মাত্রই পুরো খবরটি ফেসবুকে দ্রুত লোড হবে কিন্তু খবরের সাইটটি লোড হবে না।

কিভাবে বুঝা যাবে Facebook Instant Articles কি না?

ফেসবুকে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল কিনা তা জানা যাবে সহজেই।কোন কনটেন্ট ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের সাথে যুক্ত কিনা তা সহজেই নির্ণয় করতে লক্ষ করুন শেয়ার করা লিংকের ডানপাশে বিদ্যুতের মত (থাম্বারবোল্ড) চিহ্ন দেখায় কিনা?


ফেসবুকের এই ফিচার যুক্ত করা আর্টিকেল গুলো ক্লিক করার সাথে সাথে খুব দ্রুত লোড হবে। বুঝায় যাবে না যে, ইন্টারনেট থেকে লোড হচ্ছে না মোবাইলের কোন সেভ করা কনটেন্ট ওপেন হচ্ছে।


ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলগুলোর লিংকের পাশে বিদ্যুতের মত (থাম্বারবোল্ড) চিহ্ন দেখা যাবে। ফলে আপনি লিংকটি দেখেয় বুঝতে পারবেন এটি ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল।

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল চালু করার নিয়ম


সহজ কয়েকটি ধাপ সম্পন্ন করে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল চালু করতে পারেন। এটি চালু করার জন্য আপনার একটি ফেসবুক পেজ থাকা লাগবে।

সাইন আপ করার পর আপনার একাউন্টি একটিভ হওয়ার জন্য কিছু সময় দিতে হবে। ফেসবুক রিভিউ করে জানিয়ে দিবে এই ফিচারটি আপনার জন্য প্রযোজ্য কিনা।

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল চালু করার ধাপসমূহঃ


এক: এই ফিচারের জন্য সাইন আপ করার জন্য https://instantarticles.fb.com/ এই লিংকে ক্লিক করুন। ফেসবুক আপনাকে দেখিয়ে দিবে কি করতে হবে।

দুই: সাইনআপ ফরম পূরণ করে সাবমিট দিলে পরবর্তী পেজ চলে আসবে। এখানে আপনার ফেসবুক পেজ সিলেক্ট করতে হবে, যে পেজটিতে আপনি ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল চালু করতে চান।

এই ফিচার চালু করার ক্ষেত্রে ফেসবুকের যে সব শর্ত রয়েছে তার সঙ্গে একমত, এই মর্মে বক্সে টিক মার্ক করে ফিচারটি চালু করে নিন।

তিন: এবার যে পেজটিতে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল ফিচার চালু করবেন সেটির পাবলিশিং টুল এ যান। Publishing Tools এ ক্লিক করুন। পাশে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল অপশন দেখতে পাবেন।

Instant Articles অপশন ক্লিক করলে কনফিগার করার অপশন পাবেন। কনফিগার ক্লিক করুন।

চার: এই ধাপে আপনার সাইটের অথোরাইজ অনুমোদন করতে হবে। এজন্য ‘Authorize your site’ এ ক্লিক করুন।

পাঁচ: অথোরাইজ ইউর সাইট ক্লিক করলে একটি নতুন উইন্ডো ওপেন হবে। সেখানে আপনার ব্যাক্তিগত সাইটের লিংক দিতে হবে।

সাইটের লিংক যুক্ত করার ক্ষেত্রে লক্ষ রাখতে হবে যে, আপনার সাইটটি যদি ওয়ার্ডপ্রেস হয়ে থাকে তাহলে ‘Facebook Instant Articles’ প্লাগিনটি ইন্সটল করতে হবে।

এরপর লিংকটি সাবমিট করতে হবে। আর যদি HTML পেজ হয়ে থাকে তাহলে সরাসরি ওয়েবসাইটের লিংক বসিয়ে ক্লেম করবেন।

নিজে করতে না পারলে সাইটের ডেভেলপারদের সাথে যোগাযোগ করুন।

ছয়: সঠিকভাবে ক্লেম করার পর আপনার সাইটের সকল পোস্ট ফেসবুক স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের মধ্যে নিয়ে আসবে।

এখান থেকে ফেসবুক নিজ থেকেই ৫ টি পোস্ট বেচে নিবে রিভিউয়ের জন্য। রিভিউয়ের জন্য সাবমিট করার পর আপনাকে ২৪-৪৮ ঘন্টা অপেক্ষা করতে হবে।

সাধারণত ২-৩ দিনের মধ্যে রিভিউ করে থাকে। কোন কোন ক্ষেত্রে ৫-৭ দিন সময় লেগে যায়। আপনার ওয়েবসাইটের লেখা যদি ইউনিক হয় তাহলে Facebook Instant Articles ফিচারটি চালু হবে।

এই ফিচারটি একটিভ হয়ে গেলে ডেভেলপার অ্যাপে গিয়ে আপনার ইনকাম কত হয় তা দেখা যাবে।

অ্যাপ্রুভ না হলে কি করবেন?

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের জন্য সাবমিট করার পর যদি আপনার সাইটটি অ্যাপ্রুভ না হয় তাহলে সাথে সাথে আবার সাবমিট করবেন না।

এক্ষেত্রে ফেসবুকের শর্তসমূহ ভাল করে পড়ুন এবং সাইটে ইউনিক আর্টিকেল ভর্তি করুন।

অনলাইনে এই সম্পর্কিত আর্টিকেলগুলো পড়ুন। সবকিছু ঠিক হলে পুনরায় সাবমিট করুন।

আপনার সাইটে ইউনিক আর্টিকেল থাকলে অবশ্যই ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল শেয়ার করার অনুমোদন দিবে।

Facebook Instant Articles এর ক্ষেতে যে তথ্য জানা জরুরী


ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল একটিভ হয়ে গেলে আপনার সাইটে অবশ্যই নিয়মিত ইউনিক আর্টিকেল শেয়ার করতে হবে। প্রথমদিকে কপিপেস্ট গ্রহণ করলেও এখন ফেসবুক নতুন শর্ত আরোপ করেছে।

ফলে কপিপেস্ট সাইটগুলো বতিল হয়ে গেছে। ফেসবুকের এই সেবা থেকে আয় বাড়াতে চাইলে বড় বড় দেশগুলোর ট্রাফিককে টার্গেট করে আর্টিকেল লিখতে হবে। অনেকে মনে করেন ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল সাইটের ভিজিটর কমিয়ে দেয়।

আসল কথা হচ্ছে মূল টাইটের ভিজিটর কমলেও সাইটের হিট কমবে না। কেননা ফেসবুক সার্ভার থেকে পাঠক সাইটের কনটেন্ট হিট করবে। এক্ষেত্রে এলেক্সা র‌্যাংকিং এর কোন প্রভাব ফেলবে না।

আপনার সাইটে যদি এডসেন্স যুক্ত করা থাকে তাতেও কোন প্রভাব ফেলবে না।

গুগল অ্যানালিটিক কোড ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলে বসালে অ্যানালিটিক পরিসংখ্যান দেখা যাবে।


ফেসবুকের এই ফিচার থেকে কত টাকা আয় করা সম্ভব?


ফেসবুক থেকে অনেকেই লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করছে এটা সত্যি। আপনার সাইটের ভিজিটর যদি না থাকে তাহলে আয় হবে ক্যামনে? সাইটের ভিজিটরের উপর নির্ভর করবে আপনার আয় কি রকম হবে।

আপনি যে পেজে ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল যুক্ত করছেন সেটির ভিজিটর যদি লক্ষ লক্ষ হয়ে থাকে তাহলে আপনার আয় লক্ষ লক্ষ হবে। আর যদি পেজের ভিজিটর অল্প থাকে তাহলে আপনার আয়ও অল্প হয়ে যাবে।

অনেকেই বলে থাকেন ফেসবুকের সিটিআর রেট খুবই জঘন্য। এজন্য অনেকেই খুবই বিরক্তিবোধ করছে। তবে আপনার সাইট যদি পপুলার হয়ে থাকে তাহলে অনেক ভাল মানের আয় এখান থেকে আসবে।

একবার চিন্তা করে দেখুন আপনার পেজের ভিজিটর যদি কোটি কোটি হয়ে থাকে তাহলে ফেসবুক সিটিআর রেট যতই কম থাকুন না কেন আপনার আয় কিন্তু কোটি টাকা থাকবে।

আমাদের দেশ থেকে বড় বড় রাষ্টগুলোর সিটিআর রেট অনেক বেশি। এগুলো রাষ্ট থেকে ভিজিটর আসলে আপনার আয় অনেক বেরে যাবে। 

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলে কিভাবে ফেসবুক বিজ্ঞাপন দেখাবে?


আপনার সাইটের পোস্টগুলো ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল টুলের মাধ্যমে ফেসবুক পেজে দেখাবে এবং এর সাথে ফেসবুক বিজ্ঞাপনও দেখাবে।

আপনার সাইটে যদি গুগল এডসেন্স যুক্ত করা থাকে তবুও ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের উপর কোন প্রভার পড়বে না।

ওয়েবসাইটের পোস্টগুলো ইন্সট্যান্ট আর্টিকেলের মাধ্যমে ফেসবুক পেজে শেয়ার করার মাধ্যমে যে বিজ্ঞাপন দেখানো হবে তার জন্যই মূলত ফেসবুক আপনাকে পেমেন্ট করবে।

ফেসবুকে ব্যাংক একাউন্ট কিভাবে যুক্ত করবেন?

ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল থেকে যা আয় হবে তা আপনার ব্যাংক একাউন্টে পাঠিয়ে দিবে ফেসবুক। এজন্য ফেসবুকে আপনার ব্যাংক একাউন্টটি যুক্ত করতে হবে।

ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন।

প্রথমে Facebook Instant Articles অপশনে যান। এখান থেকে Audience Network এ যান। এবার Payout অপশনটি ক্লিক করুন।

এখন Register a New Company ক্লিক করে বিস্তারিত তথ্য দিন। এগুলো শুধুমাত্র ফেসবুক কর্তপক্ষ দেখতে পারবে।

Continue তে ক্লিক করে Payment ইনফোতে আপনা ব্যাংক একাউন্ট দিয়ে সাবমিট করুন।

ফেসবুকে আপনার ১০০ ডলার জমা হলে এই একাউন্টে পাঠিয়ে দিবে।

ফেসবুক ইন্সট্যান্ট আর্টিকেল সম্পর্কে আপনার মনে অনেক প্রশ্ন জাগতে পারে । বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিংকগুরো ফলো করতে পারেন।

https://instantarticles.fb.com/

https://developers.facebook.com/docs/instant-articles
https://developers.facebook.com/docs/instant-articles/guides/publishertools

শেষকথাঃ

এই ইনফোটি আপনার কাছে প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করে নিজের ওয়ালে রেখে দিন। পরবর্তী যে কোন সময় খুজে পেতে আপনার নিজের ওয়ালেই সহজেই পেয়ে যাবেন।

অন্যদের এ বিষয়ে জানাতে বিভিন্ন গ্রুপে শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন। লাইক, কমেন্ট করে আমাদের সাথেই থাকুন।



Home BD info এর অন্যান্য ইনফো জানুন




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !