সেনা বাহিনীতে কি কি পদমর্যাদার পদবী রয়েছে? কোন পদের সম্মান কতটুকু?

0

 সেনা বাহিনীতে কি কি পদমর্যাদার পদবী রয়েছে? কোন পদের সম্মান কতটুকু? এক নজরে দেখুন সৈনিক থেকে অফিসার পদমর্যাদা ইত্যাদি নিয়ে আজকের এই ইনফোটি ।

বাংলাদেশের বিশাল একটি জনগোষ্টি তাদের ক্যারিয়ার সেনাবাহিনীতে গড়ে থাকেন। আপনিও যদি এই বাহিনীতে ক্যারিয়ার গড়তে চান তাহলে দেখে নিন “সেনা বাহিনীতে কি কি পদমর্যাদার পদবী রয়েছে? কোন পদের সম্মান কতটুকু? এক নজরে দেখুন সৈনিক থেকে অফিসার পদমর্যাদা”

সেনা বাহিনীতে কি কি পদমর্যাদার পদবী রয়েছে? কোন পদের সম্মান কতটুকু?
ছবি: সংগ্রহিত

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কমিশন্ড অফিসার, জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার (জেসিও), নন-কমিশন্ড অফিসার (এনসিও) এবং জেনারেল সোলজার বা সাধারণ সৈনিক পদ রয়েছে। তাদের মধ্যে কমিশনপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা হলেন প্রথম শ্রেণীর সৈনিক, জেসিওরা হলেন প্রথম শ্রেণীর (নন-ক্যাডার) সদস্য এবং এনসিও (সার্জেন্ট দ্বিতীয় শ্রেণীর) । আর বাকী সৈনিকসহ অন্য সকলকে তৃতীয় শ্রেণীর সদস্য হিসেবে গণ্য করা হয়।


কমিশনড অফিসার

সেনাবাহিনীতে কমিশনড অফিসাররা শুধুমাত্র অফিসার হিসাবে বিবেচিত হয়। লেফটেন্যান্ট, ক্যাপ্টেন, মেজরদের বলা হয় জুনিয়র অফিসার

(তবে এটি জুনিয়র কমিশনড অফিসার নয়)। অন্যদিকে, মেজর জেনারেল, লেফটেন্যান্ট জেনারেল পদে অধিষ্ঠিত ব্যক্তিদের সংক্ষেপে জেনারেল বলা হয়।

তবে এটি একটি সাধারণ পদবি নয়। কারণ- জেনারেল নামে আরও একটি পদ আছে। আর ব্রিগেডিয়ার জেনারেলদের সংক্ষেপে ব্রিগেডিয়ার বলা হয়। যদিও এই পদবীতে জেনারেল শব্দটি যোগ করা থাকে। তবে জেনারেল পদবী নয়, এখানে ব্রিগেডিয়ার পদবি।

(ads1)


জুনিয়র কমিশনড অফিসার (জেসিও) 

ব্রিটিশ রাজের সময় ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনীতে জুনিয়র কমিশনড অফিসার (জেসিও)।

ভাইসরয়ের কমিশন্ড অফিসার (ভিসিও) নামে পরিচিত ছিল”। যা রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে একটি জুনিয়র কমিশন পায় এবং গেজেটেড হয়।


জুনিয়র কমিশন্ড অফিসাররা (জেসিও) হল আর্মি সার্জেন্ট (পূর্বে হাবিলদার নামে পরিচিত) এবং সিনিয়র সার্জেন্টরা মেধা ও জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে জেসিও পদে উন্নীত হয়।

2014 সালে, JCO গুলিকে দ্বিতীয় শ্রেণী থেকে প্রথম শ্রেণিতে নন-ক্যাডার হিসাবে সুবিধা সহ আপগ্রেড করা হয়- 


যেমন পৃথক মেস, বাসস্থান, ব্যাডম্যান, পোশাক এবং নবম শ্রেণীর বেতন এবং অনুষঙ্গ সুবিধা ইত্যাদি।

সেনাবাহিনীর নিয়ম অনুযায়ী, JCO-এর জুনিয়র সদস্যরা স্যার এবং কমিশনড অফিসাররা সাহেব বলে সম্বোধন করে থাকে।

এবং সবাই জ্যেষ্ঠতা এবং অভিজ্ঞতাকে সম্মান করে এবং সমস্ত সৈন্যের এই জেসিও পদমর্যাদা অর্জনের প্রবল ইচ্ছা রয়েছে।


জেসিও পদবীতে আছেন

ওয়ারেন্ট অফিসার

সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার

এবং মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ১৯৭১ সালে পূর্ব পাকিস্তান বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর পাকিস্তান সেনাবাহিনীর কাছ থেকে 'জেসিও' র‌্যাঙ্ক সিস্টেম উত্তরাধিকারসূত্রে পেয়েছিল। তবে, 2000 সাল থেকে নায়েব সুবেদারের পদটি আন্তর্জাতিক মান অনুযায়ী ওয়ারেন্ট অফিসার পদে পরিবর্তন করা হয়।


অন্যান্য ইনফো জানুন

সেনাবাহিনীতে নিয়োগ বা ভর্তির প্রতারণার ফাদ এবং প্রতারক হতে সাবধান হোন

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস বা বিসিএস ক্যাডার কি?

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবলায় নিয়োগ ও নোটিশ বোর্ড দেখুন এখানে


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)


#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !