ক্রিপ্টোকারেন্সি (বিটকয়েন) মার্কেটপ্লেস প্যাক্সফুল ডট কম: Cryptocurrency (Bitcoin) Marketplace Paxful.com

বাংলাদেশে ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহার অবৈধ হওয়া এর লেনেদেন কিংবা ক্রয়-বিক্রয় দেশে করা যায় না। কিন্তু যারা প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন তাদের কাছে যদি ক্রিপ্টোকারেন্সি মুদ্রা থাকে তাহলে তারা এই মার্কেট প্লেসের মাধ্যমে দেশে পাঠাতে পারেন খুব সহজেই।

অনেক প্রবাসী এই মার্কেট প্লেসটি ব্যবহার করছেন। এমননি অনেকে এই মার্কেট প্লেস থেকে আয়ও করছেন।

আমাদের এক ক্লায়েন্ট বিটকয়েনে অর্থ পরিশোধ করে। সেই বিট কয়েন বাংলাদেশে ব্যবহার করা নিষিদ্ধ হওয়ার এই মুদ্রা নিয়ে বিব্রতবোধ করি, বিষয়টি জানালে ক্লাইয়েন্ট আমাদের এই মার্কেটপ্লেটটিতে বিক্রি করতে বলে। ফলে আমরা বিট কয়েন এই মার্কেট প্লেসটিতে বিক্রি করে ব্যাংক একাউন্টে টাকা গ্রহণ করি। এছাড়াও বিটকয়েন বিক্রি করে বিকাশ রকেটে ক্যাশ গ্রহণ করা যাবে। একাউন্ট খুলতে ভিজিট করুন: Paxful.com

বিট কয়েন মার্কেটপ্লেস

বিটকয়েন লেনদেন বিশ্ববাজরে বেরেই চলছে

কিছু কিছু দেশে বিটকয়েন লেনদেন নিষিদ্ধ হলেও অনেক দেশেই এটি দিয়ে লেনদেন চলছে। অতি সম্প্রতিক সময়ে একটি দেশ ঘোষনা দিয়েছে যে, বিট কয়েন তাদের দেশে বৈধ মুদ্রা হিসাবে ব্যবহার করা যাবে।

অনেকে আশা করছে অনেক দেশেই এই ডিজিটাল মুদ্রা বৈধ হিসাবে ব্যবহার করা যাবে। বাংলাদেশে বিটকয়েন লেনদেন হবে কিনা তার কোন আলামত আমাদের কাছে নেই। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক এটিকে নিষিদ্ধ করায় বাংলাদেশে বিটকয়েন কেনাবেচা করা অবৈধ।

বিশ্ববাজারে বিটকয়েন বেশ বেরেই চলছে, এটিকে নিয়ে একখ অনেক এক্সচেঞ্চ প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠছে। এ বাজারে প্রতিনিয়ত কোটি কোটি ডলারের বিটকয়েন কেনা বেচা হচ্ছে। তবে বাজারগুলোতে বিটকয়েন এর দরপতন খুবই অসম ।

কিপ্টোকারেন্সি মার্কেটপ্লেসগুলোর গ্রহণযোগ্যতা

দেশের ভিতর কিপ্টোকারেন্সি নিষিদ্ধ হলেও বিশ্ব বাজারে এর গ্রহণযোগ্যতা দিন দিন বেরেই চলছে। মাইক্রসফ্ট, অ্যামাজনের মত বড় বড় কোম্পানীগুলো এখন ক্রিপ্টোকারেন্সিতে অর্থ গ্রহণ করছে।

লোকাল বাজারে এর অনুপস্থিতি থাকলেও বিশ্ববাজারে এর চাহিদা বহুগুণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশ্ববাজরে ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে অনেকগুলো বাজার তৈরি হয়েছে। তারই একটি হচ্ছে প্যাক্সফুল ডট কম।

কোন মন্তব্য নেই:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.