ওয়েবসাইটের আয় বৃদ্ধি: Ezoic টুল ব্যবহার করে পাবলিশেয়ার আয়কে দ্বিগুণ করে নিন

অনলাইনে যারা পাবলিশেয়ার আয় করছেন, তারা পাবলিশেয়ার আয়কে আরো বৃদ্ধি করে নিতে পারেন Ezoic টুল ব্যবহার করে। ইজোইক হচ্ছে গুগলের সবচেয়ে বড় পার্টনার পাবলিশেয়ার নেটওয়ার্ক। আজকের এই ইনফোতে ইজোইক সম্পর্কে আলোচনা করা হলো।

আপনি গুগল এডসেন্স ব্যবহার করে থাকলে ইজোইক হতে পারে আপনার জন্য ইনকাম বুস্ট করার উপায়। কেননা Ezoic এর সাথে বহু পাবলিশেয়ার যুক্ত করা রয়েছে। ফলে ইজোইক ব্যবহারে বিভিন্ন পাবলিশেয়ার এড বিড প্রতিযোগিতা করে আপনার ইনকামকে বহুগুণ বৃদ্ধি করবে।

ওয়েবসাইটের ইনকাম বৃদ্ধি করুন Ezoic দিয়ে

Ezoic কিভাবে ওয়েবসাইটের আয় বৃদ্ধি করে?

আমরা যারা পাবলিশেয়ার নিয়ে কাজ করি তাদের বেশির ভাগই গুগল এডসেন্স ব্যবহার করে থাকি। নতুন যারা পাবলিশেয়ার ইনকাম শুরু করেন তাদের অনেকেই হতাশ হয়ে যায়। কেননা প্রথম অবস্থায় তারা নিয়ম-কানুন ভাল করে না জেনেই ইনকাম শুরু করে দেয়।

প্রথম অবস্থায় আয় অনেক কম। তাছাড়া নতুন অনেকে আয় বারার জন্য কপি পেস্ট করে ওয়েবসাইট করে। ফলে তারা গুগল এডসেন্স অনুমোদন পায় না কিংবা পেলেও বাতিল হয়ে যায়। এক্ষেত্রে আপনার জনা উচিৎ যে, ওয়েবসাইট থেকে আয় করতে হলে আপনাকে কপি পেস্ট পরিহার করতে হবে।

অন্যের থেকে আলাদা সত্তা তৈরি করতে পারলে অনলেইনে আপনার অবস্থান তৈরি হবে এবং আপনার আয়ও অনেক বৃদ্ধি পাবে।




আপনার সাইটে যদি মাসে ১০ হাজারের বেশি ইউনিক পেজভিউ থাকে তাহলে Ezoic হতে পারে আপনার আয় বৃদ্ধির উপযুক্ত মাধ্যম। তাছাড়া এডসেন্স আয়কেও এটা বৃদ্ধি করে বহুগুণে।

ইজোইক টুলের পেইড ও ফ্রি সার্ভিস

একটি ওয়েবসাইট উন্নত করতে যা যা প্রয়োজন তার সবই রয়েছে ইজোইক টুলে। নতুন অবস্থায় ফ্রিতে এটি ব্যবহার করে আয় বৃদ্ধি করে নিতে পারেন। যখন আপনার আয় অনেক বৃদ্ধি হবে তখন এর পেইড সার্ভিসগুলো ব্যবহার করে ব্যবসার উন্নতি করতে পারেন।

এর ফ্রি সার্ভিসগুলোর মধ্যে জনপ্রিয় হচ্ছে, SEO বুস্ট, CLOUDFLARE, ওয়েবসাইট মনিটাইজেশন ইত্যাদি।

এর পেইড সার্ভিসগুলো ব্যবহার করে সাইট স্পিড অনেক উন্নত করতে পারেন। এছাড়ার এসইও যে কোন ট্যাগ ব্যবহার করে এসইও বুস্ট করতে পারেন সহজেই।

ইজোইক ওয়েব টুল

গুগল এনালাইটিক এর মতই এর এনালাইটিক সার্ভিসটি ব্যবহার করতে পারবেন সহজেই। এর সকল সার্ভিস ব্যবহার করার জন্য আলাদা আলাদা কনফিগার করার প্রয়োজন হয় না। শুধুমাত্র প্রথমেই সাইটটি নেম সার্ভার কনফিগার করলে সকল টুল ব্যবহার করা যাবে।

Ezoic মনিটাইজেশন চালু করলে অনেক পেইড সুবিধা ফ্রি উপভোগ করা যায়

আপনার সাইটের পেজভিউ যদি মাসে সর্বনিম্ন ১০ হাজার হয় তাহলে ইজোইকের মনিটাইজেশন ফিচারটি চালু করে নিতে পারেন।

এটি চালু করলে আপনার দুটি সুবিধা হবে। এক. আপনার ইনকাম বৃদ্ধি হবে এবং দুই. অনেক পেইড সার্ভিস ফ্রি উপভোগ করতে পারবেন।

আপনি যদি নতুন পাবলিশেয়ার হয়ে থাকেন তাহলে এটি আপনাকে উপরে উঠতে সাহায্য করবে। আপনার ইনকাম অনেক বেশি হলে এর পেইড সার্ভিস নিয়ে ব্যবসাকে আরো উন্নত করতে পারেন।

আপনার যদি আগে থেকেই এডসেন্স একউন্ট খোলা থাকে তাহলে এর মনিটাইজেশন মেনুতে গিয়ে সেটি যুক্ত করে আয় বারাতে পারেন। না থাকলেও সমস্য নাই, নতুন করে কনফিগার করতে পারবেন।

এর কনফিগার করার জন্য ইজাইক ইউটিউব চ্যালেনে ভিডিওতে বিস্তারিত দেখে নিতে পারেন। কোন সমস্যা হলে এদের সাপোর্ট সেন্টারে যোগাযোগ করে সমাধান করে নিতে পারবেন।

কিভাবে ইজাইক একাউন্ট খুলবেন?

ফ্রিতে আপনি এই ওয়েবটুল সার্ভিস সাইটের একাউন্ট খুলতে পারবেন। একাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে এখানে ক্লিক করুন। নিচের মত একটি পেজ আজবে।

ইজাইক একাউন্ট খোলার নিয়ম

এখানে 'START FREE TRIAL' বাটনটি ক্লিক করুন। নিচের মত একটি পেজ আসবে।

ইজাইক একাউন্ট খোলার প্রথম ধাপ

এখানে দুটি ঘর দেখতে পাচ্ছেন। ঘর দুটিতে আপনার ইমেইল নাম্বার প্রবেশ করে CONTINUE বাটন ক্লিক করুন।

নিচের মত একটি ফরম আসবে। এখানে আপনার ওয়েবসাইটের লিংকটি দিয়ে দিন।

ইজাইক টুলে ওয়েবসাইট যুক্ত করার নিয়ম

নিচের CONTINUE বাটন ক্লিক করুন। নিচের মত ফরম আসবে।


এখানে তিনটি অপশন পাবেন। তিনওটি ব্যবহার করতে চাইলে এনাবল করে দিয়ে কন্টিনিউ বাটন ক্লিক করুন।

পরবর্তী ধাপে আপনার একাউন্টি রেডি হয়ে যাবে। এখন আপনার ব্যাক্তিগত তথ্য দিয়ে একাউন্ট সম্পন্ন করুন।

Ezoic টুল ব্যবহার করার জন্য যা জানা প্রয়োজন

ইজাইক থেকে আয় করতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। গুগল এডসেন্স ব্যবহার করতে যে শর্তগুলো পালন করতে হয় একই শর্ত পালন করতে হবে ইজাইক ব্যবহারে। ‍যদিও ইজাইক ও গুগল আলাদা প্রতিষ্ঠান।

তবে তাদের নিয়মগুলো একই । এছাড়া গুগলের পার্টনার প্রতিষ্ঠান হচ্ছে ইজাইক। তাই ইজাইক ব্যবহার করতে হরে কোন ভাবেই সাইটে কপিপেস্ট করা যাবে না।

এদের নীতিমালা ভাল করে কয়েকবার পড়ে তারপর এর সাতে যুক্ত হোন।কেননা নতুন পাবলিশেয়ারদের বড় সমস্যা হচ্ছে তারা নীতিমালাগুলো পড়ে না। ফলে কয়েকদিন যেতে না যেতেই তাদের একাউন্ট বাতিল হয়ে যায়।

পাবলিশেয়ার জগতে যারা নতুন তাদের কাছে হাই রিকমেন্ট হচ্ছে কোন পাবলিশেয়ার নেটওয়ার্ক ব্যবহার করার আগে সেই নেটওয়ার্কের নীতিমালা ভাল করে পড়ার। নীতিমালা অনুসারে ব্যবহার করলে আপনি সফলতা পাবেন। এছাড়া সফল হওয়ার কোন সম্ভবনা নেই।

ইজাইকের মার্কেটিং করে আয় করার সুযোগ

আপনি ইজাইক এড নেটওয়ার্কের সাথে যুক্ত না হয়েও এর মার্কেটিং করে আয় করতে পারেন। ইজাইক এফিলিয়েট প্রগ্রামে সাইন আপ করে অফিলিয়েট লিংক শেয়ার করতে পারবেন।

আপনার মার্কেটিং করা লিংক থেকে কেউ ইজাইকে যুক্ত হলে আপনি কমিশন পাবেন। সাধরাণত ৩% কমিশন দিয়ে থাকে ইজাইক।

আপনার মার্কেটিং দক্ষতা খুব ভাল থাকলে ইজাইক মার্কেটিং করে প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন। সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে সারা পৃথীবিতে এর মার্কেটিং করতে পারবেন।

মার্কেটিং এ সফলতা পেতে হলে আপনাকে ডিজিটাল মার্কেটিং ভাল করে আয়ত্ব করতে হবে।

Ezoic Affiliate প্রগ্রামে কিভাবে যুক্ত হবেন?

ইজাইক এফিলিয়েট ব্যবহার করতে হলে আপনাকে তাদের এফিলিয়েট সাইটে সাইন আপ করতে হবে। সাইন আপ করার পর রেফারাল লিংক পাবেন । এই লিংকটি আপনাকে মার্কেটিং করতে হবে।

Ezoic এফিলিয়েট প্রগ্রামে সাইন আপ করার জন্য এখানে ক্লিক করুন। নিচের মত একটি ফরম আসবে।

Ezoic Affiliate সাইনআপ করুন

উপরের ফরমটি পূরণ করে ক্যাপচা বাটনটি টিক মার্ক দিন। এরপর নিচের সাইনআপন বাটনটি ক্লিক করুন।

আপনার আবেদনটি সফলভাবে সাবমিট হলে রিভিউ করার জন্য ইজাইক টিম কয়েকদিন সময় নিতে পারে। 

রিভিউ করার পর আপনার আবেদনটি অনুমোদন দিলে আপনাকে তা ইমেইলের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

অনুমোদন হওয়ার পর রেফার লিংক মার্কেটিং করতে পারবেন।


কোন মন্তব্য নেই:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.