৫টি গুরুত্বপূর্ণ ক্যারিয়ার টিপস : 5 important career tips

0

প্রত্যেকেরই স্বপ্ন থাকে একটি ভালো কর্মক্ষেত্র তৈরি করার। স্বপ্নের চাকরি পাওয়ার জন্য প্রত্যেকেই সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পড়াশোনা করে। কিন্তু তাদের কিছু ব্যক্তিগত এবং মানসিক অভাবের কারণে তারা স্বপ্নটি ধরতে পারেন না। নিজের ক্যারিয়ার গঠনে চেষ্টা, সাধনা এবং পরিশ্রম সঠিকভাবে কাজে লাগানো প্রয়োজন। আজকের ইনফোতে ৫টি গুরুত্বপূর্ণ ক্যারিয়ার টিপস (5 important career tips) আলোচনা করা হলো।

৫টি গুরুত্বপূর্ণ ক্যারিয়ার টিপস : 5 important career tips


ক্যারিয়ার গঠনে ত্রুটিগুলি এতটাই গুরুতর যে এটি একটি লালিত স্বপ্নের চাকরির আকাঙ্ক্ষাকে পঙ্গু করে দেয়। এসব অনাকাঙ্ক্ষিত ত্রুটি অতিক্রম করে আমাদের স্বপ্নের লক্ষ্যে পৌঁছাতে হবে। ভালো ক্যারিয়ার গড়ার সময় অনেক বিষয় বিবেচনা করতে হয়। এখানে 5টি গুরুত্বপূর্ণ ক্যারিয়ার টিপস তুলে ধরা হলো।


1. যেকোনো পরিস্থিতিতে আপনাকে শিখতে হবে

বিশ্ব ক্রমাগত পরিবর্তিত হচ্ছে এবং প্রত্যেকে ব্যবসা করার নতুন উপায় উপকরণ নিয়ে আসছে। আপনি যদি মনে করেন আপনার দক্ষতা অনেক ভালো এবং আপনার বর্তমান চাকরি অনেক ভালো তাহলে আপনার বর্তমান অবস্থান থেকে সবকিছু ভালোভাবে শিখতে হবে। কারণ ভবিষ্যতে আরও ভালো কিছু করতে চাইলে আপনার প্রাক-দক্ষতা ও জ্ঞান কাজে আসবে।


2. শুনুন, জিজ্ঞাসা করুন এবং শিখুন

একটি কথা আছে যে একজন ভালো শ্রোতা অনেক কিছু শিখতে পারে। তাই আপনার সহকর্মী, বস এবং প্রবীণরা কী বলে তা শুনুন। তাদের অভিজ্ঞতা এবং পরামর্শ থেকে আপনি অনেক কিছু শিখতে পারেন। তাদের ভালভাবে জিজ্ঞাসা করুন যদি তারা আর সংযোগে শোষিত না হয়। তাদের কাছ থেকে শিখুন কিভাবে আপনার কাজকে সুন্দর করা যায়।


3. বর্তমান কাজের মূল্যায়ন শিখুন

আপনার বর্তমান চাকরি আপনার ক্যারিয়ার শুরু করার সেরা উপায় হতে পারে। এটা সত্য যে খুব কম লোকই এটা মেনে নেয়। বাধা ছাড়া কিছুই আসে না, যারা মানে তারাই সফল। আপনি যদি আপনার বর্তমান চাকরির সমস্ত দায়িত্ব আত্মবিশ্বাসের সাথে বহন করেন, তবে এটি আপনার নতুন ক্যারিয়ার বা ভবিষ্যত ক্যারিয়ার গড়ার দিকে পদক্ষেপ হতে পারে।


যে কাজটি আপনাকে অর্পিত করা হবে তা নির্দ্বিধায় করুন। কাজের মাধ্যমে আপনি আপনার বস এবং প্রতিষ্ঠানের আস্থা অর্জন করতে পারেন। তাই দেখা যাবে ভবিষ্যতে আপনার প্রতিষ্ঠানের কোনো গুরুত্বপূর্ণ পদ সৃষ্টি হলে সেই পদে যোগ্যতা অর্জনের জন্য আপনাকে অগ্রাধিকার দেওয়া হতে পারে।


4. সম্পর্ক গড়ে তুলুন

আপনার কর্মজীবনের পরবর্তী ধাপ আপনার যোগাযোগ দক্ষতা এবং ক্ষমতার উপর নির্ভর করে। আপনি কি জানেন যে 50% এর বেশি চাকরি পরিচিত এবং সম্পর্কের মাধ্যমে হয়? যদি আপনার সম্পর্কের জাল প্রশস্ত হয়, তাহলে আপনি নতুন ব্যবসায়িক ধারণা এবং বিভিন্ন সুযোগের ধারণা পাবেন যা আপনার কর্মজীবনের জন্য নতুন দরজা খুলে দিতে পারে। তাই আপনাকে নতুন সম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে এবং তাদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতে হবে তারা কেমন আছে, তারা কি করে, তাদের ভবিষ্যৎ কর্মজীবনের পরিকল্পনা কি এবং কিভাবে সেই পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করা যায়।


5. কাজ গ্রহণ করুন

আপনার বর্তমান চাকরিকে স্বাগত জানাতে শিখুন। প্রথমত, নিশ্চিত করুন যে আপনি আপনার চাকরিটি গ্রহণ করেছেন বা আপনি এটি গ্রহণ করতে বাধ্য হয়েছেন। যদি পরেরটি হয় তবে আপনার সময় এবং প্রতিভা নষ্ট হবে। কেননা নিজের মন থেকে যে কাজ ভাল লাগে সেই কাজে শুধু সফল হওয়া যায়। যদি বাধ্য হয়ে কোন কাজ করেন তাহলে সেখানে নিজেকে কি ডেভলপ করবেন?


আপনি যখন একটি নতুন কাজ শুরু করেন, আপনি আপনার কাজ, কাজের মূল্যায়ন এবং সেই কাজের ভবিষ্যত সম্ভাবনা সম্পর্কে আপনার সহকর্মী বা উচ্চতর ব্যক্তির সাথে কথা বলতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার ভেতরের চিন্তা-চেতনার পরিবর্তন হতে পারে।


আরো জানুন:

ঘরে বসে কারিগরি শিক্ষা গ্রহণ করবেন কিভাবে?

কোয়ালিটি সম্পন্ন একটি ভালো আর্টিকেল লিখবেন কিভাবে?

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস বা বিসিএস ক্যাডার কি?

বিদেশে ক্যারিয়ার গড়তে করণীয় কি?


Tags

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)



#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !