কম্পিউটারের ইনপুট যন্ত্রগুলো কি কি? Input Devise দিয়ে কি কি ইনপুট দেওয়া হয়?

কম্পিউটারের ভিতর তথ্য ঢুকানোর জন্য আমরা যে যন্ত্র বা ডিভাইস ব্যবহার করি তাকে ইনপুট যন্ত্র বা Input Devise বলা হয়। আমরা সাধারণত কম্পিউটারে কাজ করার জন্য বিভিন্ন রকম তথ্য প্রবেশ করে থাকি। যেমন- লেখা বা ছবি ইনপুট, অডিও ইনপুট, ভিডিও ইনপুট ইত্যাদি। যে ডিভাইস বা যন্ত্র দিয়ে তথ্য প্রবেশ বা ইনপুট করি  তাকে ইনপুট ডিভাইস বলে। আজকে আমরা “কম্পিউটারের ইনপুট যন্ত্রগুলো কি কি? Input Devise দিয়ে কি কি ইনপুট দেওয়া হয়?” এই বিষয়ে আলাচনা করবো।

কম্পিউটারের ইনপুট যন্ত্রগুলো কি কি? Input Devise দিয়ে কি কি ইনপুট দেওয়া হয়?


কম্পিউটারের ইনপুট ডিভাইসগুলো বিভিন্ন রকম হতে পারে এবং একেকটি ইনপুট ডিভাইসের কাজ একেক রকম হয়। যেমন- লেখালেখি ইনপুট দেওয়ার জন্য সাধারণত ”কী-বোর্ড”, ছবি ইনপুট দেওয়ার জন্য “ক্যামেরা” কোন ডকুমেন্টের অনুলিপি কম্পিউটারে প্রবেশ করানোর জন্য স্ক্যানার ইনপুট ডিভাইস ব্যবহার করি।

 

ইনপুট ডিভাইস কি? What is input Devise?

কম্পিউটারের ইনপুট ডিভাইস হচ্ছে এক বিশেষ ধরণের পেরিফেরাল যন্ত্র যা কম্পিউটার সিস্টেমের প্রক্রিয়াকরণ ইউনিটের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে কাজ সম্পাদন করে। Input Devise তথ্য সরবরাহ এবং সংকেত নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

ইনপুট ডিভাইসগুলোকে যদি একটি ইলেক্ট্রো-মেকানিক্যাল ডিভাইস হিসাবে সংজ্ঞায়িত করি তাহলে তা অমূলক হবে না। কেননা এই ডিভাইসগুলোর মাধ্যমে আপনি কম্পিউটারে ডেটা প্রবেশ করতে পারেন।


 ডিসপ্লের নির্দিষ্ট অংশের স্ক্রিনশর্ট নিবেন কিভাবে?

গুগল ড্রাইভ ফাইল স্টোর করবেন কিভাবে?

গুগল ম্যাপের সাহায্যে দুই স্থানে দূরত্ব জানবেন কিভাবে?


কম্পিউটার ইনপুট ডিভাইসের কাজ

ইনপুট ডিভাইস ছাড়া কম্পিউটারে ভিতর কোন ডাটা প্রবেশ করাতে পারবেন না। আর এই ডিভাইসগুলোর মাধ্যমে কম্পিউটার তথ্য গ্রহণ করে প্রক্রিয়া করে। এরপর তা আউটপুট ডিভাইসের মাধ্যমে ফলাফল প্রকাশ করে।

সুতরাং ইনপুট ডিভাইস ব্যবহারকারীর কাছে থেকে নির্দেশনা বা ডাটা গ্রহণ করার জন্য ব্যবহার করা হয়। ডিভাইসগুলোর মাধ্যমে আপনি তথ্য কম্পিউটারে প্রবেশ করার পর কম্পিউটার তা প্রক্রিয়া করে আউপুট ডিভাইসে ফলাফল দেখতে পারেন।

কম্পিউটার Input Devise গুলো ইনপুট ডেটা সনাক্ত করার জন্য ব্যবহার করা হয় যা কম্পিউটার ইউজার প্রদান করে। ইনপুট ডেটা বা তথ্য বিভিন্ন রকম হতে পারে এবং ইনপুট ডিভাইসগুলোও বিভিন্ন তথ্য গ্রহণের জন্য বিভিন্ন রকম রয়েছে।

ইনপুট ডেটাতে লেখা, চিত্র, অডিও কিংবা ভিডিওর মতো অনেকগুলো রুপ রয়েছে। এই রুপগুলোর ভিত্তিতে ইনপুট ডিভাইসগুলো আলাদা। 


কম্পিউটারের ইনপুট ডিভাইসগুলো কি কি?

আপনি যদি একজন কম্পিউটার ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তাহলে Input Devise গুলো সম্পর্কে জানা প্রয়োজন। কোন ইনপুট ডিভাইস দিয়ে কি ধরণের ডাটা কম্পিউটারে প্রবেশ করানো হয় তা জানা থাকলে সহজেই যে কোন ডিভাইস ব্যবহার করতে পারেন সহজেই। নিচে কম্পিউটারের ইনপুট ডিভাইসগুলোর তালিকা দেওয়া হলো।

কম্পিউটারের ইনপুট ডিভাইসগুলো কি কি?


  1. কিবোর্ড (Keyboard)
  2. মাউস বা পয়েন্টিং ডিভাইস (Mouse -pointing device)
  3. স্ক্যানার (Scanner)
  4. মাইক্রোফোন (Microphone)
  5. ক্যামেরা (Cameras)
  6. ওয়েবক্যাম (Webcam)
  7. জয়স্টিক (Joystick)
  8. ইলেকট্রিক হোয়াইটবোর্ড (Electronic Whiteboard)
  9.  গ্রাফিক্স ট্যাবলেট (Graphics Tablets)
  10. টাচপ্যাড (Touchpad’s)
  11. লাইট পেন (Light Pen)
  12.  বারকোড রিডার (Barcode reader)
  13. বায়োমেট্রিক্স স্ক্যানার (Biometric scanner)
  14. ডিজিটাল ক্যামেরা (Digital camera)
  15. ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানার (Finger Print scanner)
  16. ভিডিও ক্যাপচার হার্ডওয়্যার (Video Capture Hardware)
  17. গেমপ্যাড (Gamepad)
  18. ট্র্যাকবল (Trackballs)
  19. পাঞ্চ কার্ড রিডার (Punch card reader)
  20. ম্যাগনেটিক টেপ ড্রাইভ (Magnetic Tape Drive)
  21. ও.এম.আর মেশিন (O.M.R Machine)
  22. ও. সি. আর মেশিন (O.C.R Machine)
  23. MICR (Magnetic Ink character reader)
  24. MIDI keyboard
  25. মোশন সেন্সর ইত্যাদি।
উপরোক্ত ইনপুট ডিভাইসগুলো দিয়ে বিভিন্ন ধরণের তথ্য কম্পিউটারে প্রবেশ করানো হয়। নিচে জনপ্রিয় কিছু ইনপুট ডিভাইসের কাজ উল্লেখ করা হলো।

জনপ্রিয় ইনপুট ডিভাইসের ব্যবহার

ইনপুট ডিভাইস কি? What is input Devise? কত ধরণের ইনপুট ডিভাইস রয়েছে তা আমরা ইতিমধ্যেই জেনে গেছি। এখন আমরা জনপ্রিয় কিছু ইনপুট ডিভাইসের ব্যবহার জানবো।

যে ইনপুট ডিভাইসগুলো সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয় এবং ব্যবহারের দিক থেকে বেশ জনপ্রিয় এমন যন্ত্রগুলো নিচে আলোচনা করা হলো।

কিবোর্ড (Keyboard) এর কাজ বা ব্যবহার

কিবোর্ড (Keyboard) এর কাজ বা ব্যবহার

সাধারণত কম্পিউটারে লেখালেখি কাজের জন্য  কী-বোর্ড (keyboard) ব্যবহার করা হয়। বিভিন্ন লেখা বা বর্ণ টাইপ করার জন্য কী-বোর্ড ব্যবহার করি এবং এটি দিয়ে বিভিন্ন রকম কম্পিউটারের নির্দেশ প্রদান করা হয়।

ইনপুট ডিভাইসগুলোর মধ্যে বহুল ব্যবহৃত একটি ডিভাইস হলো এটি। কীবোর্ড এ অনেকগুলো কী (Key) রয়েছে। অর্থাৎ কীগুলো বিভিন্ন প্রকার রয়েছে। যেমন- আলফাবেট কী দিয়ে অক্ষর বা বর্ণ ইনপুট দেওয়া হয়, নাম্বার কী দিয়ে সংখ্যা ইনপুট দেওয়া হয়, ফাংশন কী দিয়ে বিভিন্ন নির্দেশ ইনপুট দেওয়া হয়।

মাউস বা পয়েন্টিং ডিভাইস (Mouse -pointing device)

মাউস বা পয়েন্টিং ডিভাইস (Mouse -pointing device)

ইঁদুরের মতো দেখতে ছোট ইনপুট ডিভাইসটিকে বলা হয় মাউস (Mouse)। মাউসের কাজ হচ্ছে বিভিন্ন ধরণের নির্দেশ প্রদান করা। এটি দিয়ে কম্পিউটারকে ক্লিক নির্দেশ প্রদান করা হয়।

কম্পিউটারে শুধুমাত্র ক্লিক করে বিভিন্ন ধরণের নির্দেশ দেওয়ার জন্য মাউস খুবই জনপ্রিয় একটি ইনপুট ডিভাইস। কম্পিটারের মাউসের (Mouse) এর ব্যবহার খুবই সুবিধাজনক।

কম্পিউটারে কোন কিছু নির্বাচন করার জন্য সহজেই তার উপর মাউস পয়েন্টার নিয়ে সিলেক্ট করা যায়। এই ডিভাইসটি সাধারণত ছবি আঁকা ও গ্রাফিক্সের কাজ করতে বেশি ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

এছাড়াও কোন ফাইল ফোল্ডার কিংবা কোন প্রগ্রাম ওপেন করার জন্য মাউস ব্যবহার করা হয়। মাউস বাটন চেপে কম্পিউটারকে বিভিন্ন ক্লিক নির্দেশ দেওয়া হয়।

স্ক্যানার (Scanner) ইনপুট ডিভাইসের ব্যবহার

স্ক্যানার (Scanner) ইনপুট ডিভাইসের ব্যবহার


কোন ডকুমেন্ট এর অনুলিপি কম্পিউটারে প্রবেশ করার জন্য স্ক্যানার (Scanner) ইনপুট ডিভাইসটি ব্যবহার করা হয়। অর্থাৎ স্ক্যান করার জন্য এই ডিভাইস ব্যবহৃত হয়। এর মাধ্যমে লেখা বা ছবি কিংবা বিভিন্ন নথিপত্র কম্পিউটারে ইনপুট করা হয়।

যেকোন কাগজের দলিলপত্রের অনুলিপি স্ক্যান করে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে পাঠানো যায়।

স্ক্যানার (Scanner) এর মধ্যে যা রাখা হয় তার অনুলিপি কম্পিউটারে চলে আসে এবং তা কম্পিউটারে সংরক্ষণ কিংবা এডিট করা যায়।

জয়স্টিক (Joystick) ইনপুট ডিভাইস কি?

Joystick

কম্পিউটারে গেমস খেলার জন্য জয়স্টিক (Joystick) ডিভাইসটি ব্যবহার করা হয়। যারা গেম গেলেন তাদের জন্য কিংবা শিশুদের জন্য এই ডিভাইসটি অত্যান্ত জনপ্রিয়।

জয়স্টিকের খাড়া দন্ডকে হাত দিয়ে মুভ করলে কম্পিউটারের মাউস পয়েন্টার নাড়াচাড়া করে। গেম খেলার জন্য এই ডিভাইসটি ব্যবহার হলেও বেশ কিছু কমান্ডও প্রদান করা যায়।

গ্রাফিক্স ট্যাবলেট (Graphics Tablets) কি কাজে ব্যবহার হয়?

গ্রাফিক্স ট্যাবলেট (Graphics Tablets) কি কাজে ব্যবহার হয়?

গ্রাফিক্স ট্যাবলেট (Graphics Tablets) এমন একটি ইনপুট ডিভাইস যা দিয়ে আপনি হাতে আঁকা ছবি, অ্যানিমেশন কিংবা গ্রাফিক্স সরাসরি কম্পিউটারে প্রবেশ করাতে পারেন।

কম্পিউটার ব্যবহারকারীকে এই ডিভাইসটি হাতে আঁকা ছবি, অ্যানিমেশন কিংবা গ্রাফিক্সকে বিশেষ কলম সদৃশ স্টাইলাস দিয়ে আঁকার সুবিধা প্রদান করে।

আমরা যেমন বাস্তব কাগজ, কলম, তুলি, পেন্সিল দিয়ে ছবি আঁকি সেই রকম গ্রাফিক্স ট্রাবলেট দিয়ে কম্পিউটারে সরাসরি ছবি আঁকা যায়। অর্থাৎ এটি দিয়ে ডিজিটাল ছবি অঙ্কন করা হয়।

এছাড়াও এই সমস্ত ট্যাবলেট Input Devise দিয়ে হাতে লিখা স্বাক্ষর ডেটা িইনপুট হিসাবে কম্পিউটারে দেওয়া সম্ভব।

লাইট পেন (Light Pen) দিয়ে কি কাজ করা হয়?

লাইট পেন (Light Pen) দিয়ে কি কাজ করা হয়?

কম্পিউটারের এই ইনপুট ডিভাইসটি দেখতে কলমের মতোই। এর অগ্রভাগে অর্থাৎ মাথায় সেন্সর থাকে যা আলো অনুভব করতে পারে।

লাইট পেন কম্পিউটার ব্যবহারকারীকে পর্দায় দেকতে পাওয়া বস্ত নির্দেশ করতে বা আঁকতে সাহায্য করে যেমনটা টাচস্ক্রীনে করা হয়ে থাকে।

তবে এই ডিভাইসের মাধ্যমে কাজটি আরও অধিক সুক্ষতার সাথে করা যায়। প্রকৌশল নকশা, ডায়াগ্রাম ইত্যাদি তৈরিতে এটি ব্যবহৃত হয়।

কোন মন্তব্য নেই:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.