পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কি? অনলাইনে Police Clearance Certificate কিভাবে পাবেন?

2

 Police Clearance Certificate: পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কি? কেন? এই বিষয়ে আপনাদের কাছে আজকের ইনফোটি তুলে ধরা হচ্ছে। পুলিশের সেবাগুলোর মধ্যে ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট অন্যতম একটি সেবা। কোন অপরাধী ব্যাক্তিকে পুলিশ এই সেবাটি দেয় না। আপনি যদি কোন অপরাধের সাথে যুক্ত না থাকেন তাহলে সহজেই এই সেবাটি তথা পলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেয়ে যাবেন।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাওয়ার উপায়
ছবি: ৯৯৯ জরুরী সেবা ওয়েবসােইটের

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কি এবং এটি কেন প্রয়োজন হয় তা অনেকেরই সঠিক ধারণা নেই। ফলে অনেক ক্ষেত্রেই ভোগান্তির স্বীকার হতে হয়।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কি (What is Police Clearance Certificate)

আপনি যে দেশের একজন সু নাগরিক কিংবা আপনি কোন প্রকার অপরাধের সাথে জড়িত নেই তার প্রমাণই হচ্ছে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট।

কোন অপরাধীর পক্ষে এ সার্টিফিকেট গ্রহণ করা সম্ভব নয়। পুলিশ সাধারণ কোন অপরাধীকে এই সার্টিফিকেট দেয় না।

দেশের সুনাগরিকরাই পুলিশের এই সেবা পেতে পারেন। আপনি যে একজন সুনাগরিক তার প্রমাণ হিসাবে একমাত্র সনদ হচ্ছে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট।

আরো জানুন:





কি কি কাজে লাগে এই সার্টিফিকেট?


সরকারি বেসরকারি এমন কিছু সেবা রয়েছে সেগুলো পেতে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রয়োজন হয়। কেননা কোন অপরাধী যাতে সুনাগরিকের জন্য বরাদ্দ কোন সেবা গ্রহণ করতে না পারে সেই জন্য পুলিশ এই সেবা দিয়ে থাকে।

অপরাধীরা যাতে কিছু গুরুত্বপূর্ণ সেবা যেমন সরকারি চাকরি কিংবা বিদেশ গমন ইত্যাদি সেবা গ্রহণ করতে না পারে তা নিশ্চিত হয় পুলিশের ক্লিয়ারেন্স এর মাধ্যমে।

সরকারি সেবা ছাড়াও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে সেবা নিতে সুনাগরিকের প্রমাণ দিতে হয়। অর্থাৎ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট দিয়ে সেবা গ্রহণ করতে হয়।

আপনাকে যদি সুনাগরিক প্রমাণের প্রয়োজন হয় তাহলে ৫০০ টাকার বিনিময়ে পেতে পারেন সুনাগরিকের প্রমাণপত্র ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট।

কিভাবে ক্লিয়ারেন্সের জন্য আবেদন করবেন?


এই সার্টিফিকেট পেতে আপনি দুই ভাবে আবেদন করতে পারেন। ব্যাংকে ট্রেজারী চালানের মাধ্যমে ৫০০ টাকা জমা দিয়ে নিকস্থ থানায় গিয়ে ওসি/ এসপি/ এএসপি এর সাথে যোগাযোগ করে ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করতে পারেন কিংবা অনলাইনেও আবেদন করতে পারবেন।

থানায় আবেদন করা ক্ষেত্রে-

প্রথমেই আপনাকে সোনালী ব্যাংকে কিংবা বাংলাদেশ ব্যাংকে যেতে হবে। ব্যাংকে গিয়ে ৫০০ টাকা জমা দিয়ে ট্রেজারী চালান সংগ্রহ করুন। ব্যাংকে গিয়ে বলবেন আমি পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর জন্য ৫০০ টাকা জমা দিব।

বাংলাদেশ ব্যাংক কিংবা সোনালী ব্যাংকের যে কোন শাখায় (১-৭৩০১-০০০১-২৬৮১) কোডে করা ৫০০/- (পাঁচশত) টাকা মূল্যমানের ট্রেজারী চালান সংগ্র করে নিন। আপনি অনলাইনেও এই কোডে টাকা জমা দিয়ে ট্রেজারী চালান সংগ্রহ করতে পারবেন। 

অনলাইনে টাকা জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে ই চালান www.echallan.gov.bd: অনলাইনে সরকারি সেবার ফি জমা দেওয়ার নিয়ম ইনফোটি দেখুন।

ব্যংকে টাকা জমা করার চালানের কপিসহ আবেদন পত্র ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে থানায় যান। নির্দিষ্ট কর্মকর্তার কাছে আবেদন করুন।

আবেদন পাওয়ার পর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা যাচাই বাচাই শুরু করবে। যাচাই বাচাইয়ের পর একটি প্রতিবেদন জমা দিবে। প্রতিবেদন সন্তোষজন হলে আপনার জন্য ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য সুপারিশ কররে।

সবশেষে আপনি থানায় থেকে আপনার পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পাওয়ার শর্ত 

এই সার্টিফিকেট নিতে গেলে আপনাকে বেশ কিছু শর্ত পালন করতে হবে। প্রথম শর্ত হচ্ছে আপনার পাসপোর্টে যে ঠিকানা উল্লেখ আছে সেই ঠিকানার স্থায়ী কিংবা বর্তমান ঠিকানার বাসিন্দা হতে হবে।

বিশেদ গমন, বিদেশে কোন চাকরির জন্য কিংবা বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের ক্ষেত্রে পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের জন্য অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

বিদেশে অবস্থানরত কোন ব্যাক্তির জন্য আবেদন করতে হলে তিনি যে দেশে আছেন সেই দেশের দূতাবাস/হাই কমিশন কর্তৃক পাসপোর্ট তথ্য পাতার সত্যায়িত কপি জমা দিতে হবে।

দেশের অভ্যান্তরে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স প্রয়োজন হলে উপরের পদ্ধতিতে সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে হবে। অনলাইনে কেবল বিদেশগামী বা বিদেশে অবস্থানরত প্রবাসীদের জন্য এই সার্টিফিকেট ইস্যু করা হয়।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

অনলাইনে কিংবা সরাসরি থানায় আবেদনের ক্ষেত্রে যে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন হয় তা হচ্ছে-

** আবেদন পত্র

** টাকা জমা দেওয়ার রশিদ

** পাসপোর্ট তথ্য পাতার সত্যায়িত কপি

** জাতীয় পরিচয় পত্রের সনদের সত্যায়িত নাগরিকত্ব

** বিদেশে প্রবাসীদের জন্য দূতাবাস/হাই কমিশন কর্তৃক সত্যায়িত করতে হবে।

** বিদেশি নাগরিকের ক্ষেত্রে নিজ দেশের জাস্টিস অব পিপল কর্তৃক সত্যায়িত করতে হবে।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স অনলাইন আবেদন (Police Clearance Online Apply)


বিদেশগামি কিংবা বিদেশে অবস্থানরত কারো পুলিশ ক্লিয়ারেন্স প্রয়োজন হলে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

অনলাইন আবেদন করা জন্য যে কেউ নিজের জন্য কিংবা অন্যের জন্য নিবন্ধন করে আবেদন করতে পারবে। নিবন্ধন করার জন্য এখানে ক্লিক করুন

অনলাইনে আবেদন করার জন্য বিস্তারিত জানুন এখানে। নিবন্ধন করার পর লগইন করুন। প্রথম ধাপে ব্যাক্তিগত বিস্তারিত তথ্য এবং দ্বিতীয় ধাপে বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা দিয়ে অনলাইন ফরম পূরণ করুন।

আবেদনের তৃতীয় ধাপে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের স্ক্যান কপি আপলোড করতে হবে।

চুতুর্থ ধাপে আপনার ইন্ট্রিকৃত সকর তথ্য দেখাবে। কোন ভুল হয়ে থাকলে সংশোধন করে নিন। সবকিছু ঠিক থাকলে সাবমিট করুন। মনে রাখবেন সাবমিট করার পর কোন পরিবর্তন করতে পারবেন না। তাই ভাল করে চেক করে সাবমিট করুন।

Home BD info এর অন্যান্য ইনফো জানুন

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

2 মন্তব্যসমূহ
  1. Amar police clearance certificate রিজেক্ট আসে ekhon কি করবো

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. মিস ডকুমেন্ট এর কারণে সাধারণত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট রিজেক্ট হয়ে থাকে। আপনার প্রোফাইল লগইন করে নোটিফিকেশন দেখুন কি কি কারণে রিজেক্ট করা হয়েছে। সমস্যাগুলো সমাধান করে আবেদন করুন। প্রয়োজনে সহায়তার কেন্দ্রের সাহায্য নিন।

      মুছুন
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !