শুটকি মাছ রান্না করতে যত রকম পদ্ধতি ব্যবহার করা হয় জেনে নিন

0

শুটকি মাছ রান্না করতে যত রকম পদ্ধতি ব্যবহার করা হয় তার সবগুলোই এখানে আলোচনা করা হবে। অনেকের কাছে শুটকি মাছ অনেক প্রিয় অনেকে আবার গন্ধ সহ্য করতে পারেন না। তবে দৃতীয় শ্রীণির লোক অনেক কম, বেশিভাগ লোকই শুটকি পছন্দ করেন। ভাল করে রান্না করলে এর গন্ধ আর থাকে না এবং খেতে খুবই মজাদার লাগে।

শুটকি মাছ রান্না করার নিয়ম

শুটকি মাছ রান্না করার সাধারণ নিয়ম

ঠিকমত রান্না না হলে শুটকিমাছের মজাদার স্বাদ পাওয়া যায় না। এমনকি গন্ধও থেকে যায়। তাই যত্নসহকারে রান্না করা প্রয়োজন। রান্না করার জন্য বড়বড় শুটকি মাছ যেমন কোড়াল, শুরমা, লক্ষা, চান্দা, লইট্যা ছোট ছোট করে টুকরা করে নিন।

টুকরোগুলো একটি পাতিলে রাখুন। এরপর তাতে গরম পানি দিয়ে চার/পাঁচ মিনিট ভিজে রাখুন। এরপর টুকরোগুলো ধুয়ে ফেলুন। প্রয়োজনে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে নিতে পারেন।

এখন মসলা একটু বেশি করে দিয়ে অর্ধাৎ মরিচ, মসলা ও পিয়াজ বেশি করে দিয়ে যে কোন প্রকারের রান্না করুন। তবে লবণ একটু কম করে দিবেন। কেননা শুটকি শুকানোর সময় অনেক সময় লবণ দিয়ে শুকানো হয়। তাছাড়া সামুদ্রিক মাছে লবণ একটু বেশি থাকে।

বিভিন্ন ধরণের শুকটি যেমন মলা, চুরি, কাচকি, চিংড়ি পাঁচমিশালী ছোট মাছ ভূনা করে রান্না করতে পারেন।

মনে রাখা প্রয়োজন, শুটকিমাছ প্যাকেট থেকে খোলার পর রৌদে শুকানো ভাল। ভাল করে রৌদে শুকালে স্বাদ ভালো হয়। সংরক্ষিত শুটকিমাছ ভেজা ভেজা হলে মাঝে মাঝে রৌদে শুকিয়ে নিতে হবে।

শুটকির গন্ধ দূর করার নিয়ম

অনেকেই শুটকির তীব্র গন্ধ পছন্দ করেন না। তবে চাইলেই শুটকিমাছের গন্ধ সহজেই দূর করে নিতে পারে। আসুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে শুটকি মাছের তীব্র গন্ধ দূর করবেন।

গরম পানিতে ১০/১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিন। রান্না করার সময় সয়াবিন তেলের পরিবর্তে শরিষার তেল ব্যবহার করুন। এতে গন্ধ অনেকটা কমে যাবে।

শুটকি মাছ রান্নায় ধনে পাতা ব্যবহার করতে পারেন। শুটকির গন্ধ প্রায় চলে যাবে এতে। রান্নার মধ্যে টমেটো ব্যবহার করতে পারেন এতে গন্ধ কমে যাবে।

যদি তীব্র গন্ধ থাকে তাহলে শুটকিমাছ রান্নার আগে তেল ছাড়া হালকা নাড়াচারা করে নিবেন। তারপর গরম পানি দিয়ে উপরে প্রসেসমত রান্না করবেন । প্রসেস সঠিকভাবে করলে শুটকি মাছের গন্ধ একদম থাকবে না।


লইট্যা শুটকি কিভাবে ভূনা করবেন

লইট্যা শুটকি ভূনা করার জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ নিয়ে নিন। যেমন-  লইট্যা শুটকি পরিমান মত
পেঁয়াজ কুচি, রসুন বাটা, আদা বাট, লাল মড়িচ গুড়া পরিমান মত, লবণ পরিমান মত, তেল ইত্যাদি।

প্রথমে সাধারণ নিয়মে গরম পনিতে শুটকিগুলো ভিজিয়ে রেখে ভাল করে ধুয়ে নিন। পানি ঝড়িয়ে মাছগুলো সামান্য থেঁতো করে নিন। মোটা কাটা আলাদা করে রাখুন।

প্যানে সামান্য তেল গরমে পেয়াজ কুচি ও  সামান্য লবণ দিয়ে ভাজুন। কিছুক্ষণ ভাজার পর টমেটো বাটা, রসুন বাটা ও লাল মবিচ গুড়া দিয়ে ভাল করে কষাণ। তেল বেরুলে সামান্য পানি ও লবণ দিয়ে নাড়তে থাকুন।

এরপর মরিচ কুচ ও রসুন কুচি বাদে অন্যান্য মসলা দিয়ে মাছগুলো কষিয়ে একটু একটু পানি দিন যাতে নিচে না লাগে। কিছুক্ষণ নাড়ার পর রসুন কুচি দিয়ে প্যানে খানিকটা পানি দিয়ে ঢেকে দিন। ফুটিয়ে উঠলে পাঁচ সাত মিনিট পর ঢকনা তুলে আচ কমিয়ে দিন। 


মাখা মাখা হয়ে এলে চূলা বন্ধ করুন। প্যান নামিয়ে গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন মজাদার লইট্যা শুটকি ভূনা।
Tags

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)


#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !