কোলাপুরি চিংড়ি কিভাবে বানাবেন জেনে নিন রেসিপি

0

কোলাপুরি চিংড়ি কিভাবে বানাবেন জেনে নিন রেসিপি: ভোজনরশিকদের কাছে চিংড়ি সমসময় কদর পেয়ে থাকে। চিংড়ির কোন পদ থাকলে জমে উঠে খাবার। সাধারণভাবেই এটি পছন্দ করেন অনেকে আবার কেউ কেউ বিশেষভাবে। যারা বিশেষভাবে চিংড়ি খেতে পছন্দ করেন তাদের জন্যই আজকের এই বিশেষ রেসিপি।

কোলাপুর চিংড়ির রেসিপি

হোলী স্পেশাল রেসিপি: লোভনীয় কোলাপুরি চিংড়ি

বাংগালীরা খাওয়া দাওয়াতে খুবই মেতে উঠতে পারে। খাওয়া ছাড়া কোন উৎসব তাদের কাছে তেমন গুরুত্বই পায় না। আর যদি উৎসবের সাথে খাওয়া যুক্ত থাকে তাহলে তো কথাই নেই। উৎসব থেকে যে খাওয়ার প্রতি টান রয়েছে এটা সবাই জানে। সেই স্বভাবের সাথে হয়ে উঠুক হোলি স্পেশাল রেসিপি যা লোভনীয় কোলাপুরি চিংড়ি নামে খ্যাত ।

কোলাপুরি চিংড়ি কিভাবে বানবেন

ভোজপ্রিয়দের কাছে চিংড়ির কদরই আলাদা। খাবার সাথে কোন চিংড়ির আইটেম যুক্ত থাকলেই জমে উঠে তাদের খানা পিনা। চিংড়ি বাংগালীদের কাছে বেশ মজাদার লোভনীয় খাবার। এর কয়েকটি আইটেম বাংগালীদের কছে অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। জনপ্রিয় সেই আইটেমের সাথে যুক্ত করে নিতে পারেন আজকের এই বিশেষ আইটেমটিও।

আজকের ইনফোতে চিংড়ির এই বিশেষ আইটেমটির নাম হচ্ছে কোলাপুরি চিংড়ি। ইতিমধ্যেই আপনি চিংড়ির অনেক আইটেম ট্রাই করে থাকলে আজকের আইটেমটি চেকে দেখুন। কিভাবে কোলাপুরি চিংড়ি বানাবেন জেনে নিন।

প্রয়োজনীয় উপকরন:

  • বড় চিংড়ি ৫০০ গ্রাম

  • পেঁয়াজ একটা বড় কুচনো, লেবুর রস এক টেবল চামস

  • ধনেপাতা কুচি এক কাপ

  • কাচা লঙ্কা কুচি ২ টা

  • লবণ পরিমান মত

  • টমেটো তিনটি বড় কুচনো

  • কারি পাতা ৫/৬ টা, লঙ্কা গুড়া ২/৩ চা চামস

  • ধনে গুড়ো এক চা চামস, হলুদ গুড়ো এক চা চামস, জিরা গুড়ো এক চা চামস 

  • রসুন ৮ কোয়া, গরম মসলা টেবিল চামস, আদা বাটা এক চামস 


স্পেশাল এই রেসিপিটির প্রস্তুত প্রণালী


খুব সহজেই রান্না করে নিতে পারেন কোরাপুলি চিংড়ি। প্রথমে চিংড়িগুলো ভাল করে ধুয়ে পানি ঝড়িয়ে নিন। এরপর চিংড়িগুলো হলুদ ও লবণ মাখিয়ে কিছু সময় রেখে দিন।

এখন একটি পাত্রে তের গরম করে চিংড়ি হালকা করে ২/৩ মিনিট ভেজে নিন। এরপর একই তেলে পেঁয়াজ কুচি ও লবণ দিয়ে বাদামী করে ভাজুন।

এখন একে এক আদা-রসুন বাটা, টমেটো কুচি, কারিপাতা দিয়ে ভাল করে কষিয়ে রান্না করতে থাকুন। রান্নার প্রয়োজনে উষ্ণ পানি ব্যবহার করুন। ঠান্ডা পানি ব্যবহার করবে না। এতে স্বাদ নষ্ট হতে পারে।

টমেটো নরম হয়ে এলে তাতে ধনেপাতা কুচি, গরম মশলা ও লেবুর রস বাদে বাকি উপকরণগুলো দিয়ে নেড়ে কষাতে থাকুন। মশলা থেকে তেল বেড়িয়ে এলে ভাজা চিংড়ি ও গরম মশলা দিয়ে কষাতে থাকুন।

রান্না হয়ে এলে উপর থেকে ধনেপাতা কুচি ও লেবুর রস দিয়ে ঢেকে দিয়ে চুলা বন্ধ করুন।

এবার গরম ভাত কিংবা পোলাও এর সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন।



Tags

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)


#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !