বাংলা ভাষার সাধু ও চলিত রীতির পার্থক্য এবং আঞ্চলিক কথ্য রীতি

0

বাংলা ভাষার সাধু ও চলিত রীতির পার্থক্য এবং আঞ্চলিক কথ্য রীতি


Home BD info তে বাংলা ভাষার সম্পূর্ণ ব্যাকরণ নিয়ে আলোচনা করা হবে। সেই লক্ষে আজকে আলোচনা করা হবে বাংলা ভাষার সাধু ও চলিত রীতির পার্থক্য এবং আঞ্চলিক কথ্য রীতি নিয়ে। আগের পোস্টে ব্যাকরণের ভাষা, ভাষার সংঙ্গা এবং বাংলা ভাষারীতি, কথ্য, চলিত ও সাধু রীতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

 

সাধু রীতিঃ

  • বাংলা লেখ্য সাধু রীতি সুনির্ধারিত ব্যাকরণের নিয়ম অনুসরণ করে চলে এবং এর পদবিন্যাস সুনিয়ন্ত্রিত ও সুনির্দিষ্ট ।
  • এ রীতি গুরুগম্ভীর ও তৎসম শব্দবহুল।
  • সাধু রীতি নাটকের সংলাপ ও বক্তৃতার অনুপযোগী।
  • এ রীতিতে সর্বনাম ও ক্রিয়াপদ এক বিশেষ গঠনপদ্ধতি মেনে চরে।

চলিত রীতিঃ

  • চলিত রীতি পরিবর্তনশীল। একশ বছর আগে যে চলিত রীতি সে যুগের শিষ্ট ও ভদ্রজনের কথিত ভাষা বা মুখের বুলি হিসেবে প্রচলিত ছিল, কালের প্রবাহে বর্তমানে তা অনেকটা পরিবর্তিত রুপ লাভ করেছে।
  • এ রীতি তদ্ভব শব্দবহুল।
  • চলিত রীতি সংক্ষিপ্ত ও সহজবোধ্য এবং বক্তৃতা, আলাপ- আলোচনা ও নাট্যসংলাপের জন্য বেশি ‍উপযোগী।
  • সাধু রীতিতে ব্যবহৃত সর্বনাম ও ক্রিয়াপদ চলিত রীতিতে পরিবর্তিত ও সহজতর রুপ লাভ করে। বহু বিশেষ্য ও বিশেষণের ক্ষেত্রেও এমনটি ঘটে।

 

আঞ্চলিক কথ্য রীতি

সব ভাষারই আঞ্চলিক রুপের বৈচিত্র থাকে, বাংলা ভাষারও তা আছে। বিভিন্ন অঞ্চলে কথিত রীতির বিভিন্নতা লক্ষিত হয়, আবার কোথাও কোথাও কারো কারো উচ্চারণে বিভিন্ন অঞ্চলের ভাষার মিশ্রণও লক্ষ করা যায়। যেমন ঢাকা ও গাজীরপুর জেলায় বিভিন্ন অঞ্চলের লোক বসবাস করায় এ অঞ্চলের মানুষের কথায় বিভিন্ন উপভাষার মিশ্রণ লক্ষ করা যায়।

 

সাধু, চলিত ও কথ্য রীতির উদাহরণ

সাধু রীতি : পরদিন প্রাতে হেডমাস্টার সাহেবের প্রস্তুত লিস্ট অনুসারে যে তিনজন শিক্ষক সাহেবের সহিত সাক্ষাৎ করিবার অনুমতি পাইয়াছিলেন, তাঁহারা আটটার পূর্বেই ডাক-বাংলায় উপস্থিত হইলেন একটু পরে আবদুল্লাহ আসিয়া হাজির হইলতাহাকে দেখিয়া একজন শিক্ষক জিজ্ঞাসা করিলেন- আপনি যে! আপনার নাম তো হেডমাস্টার লিস্টে দেন নাই

উপরের অনুচ্ছেদ এ বোল্ড করা শব্দগুলো যেমন- সাহেবের, সহিত, সাক্ষাৎ,পাইয়াছিলেন, তাঁহারা,  পূর্বেই, উপস্থিত হইলেন ইত্যাদি হলো সাধু রীতির উদাহরণ।

 

চলিত রীতি : পুল পেরিয়ে সামনে একটা বাঁশ বাগান পড়ল। তারি মধ্য দিয়ে রাস্তা । মচমচ করে শুকনো বাঁশ পাতার রাশ ও বাঁশের খোসা জুতোর নিচে ভেঙ্গে যেতে লাগল। পাশে একটা ফাঁকা জায়গায় বুনো গাছপালা লতা ঝোপের ঘন সমাবেশ। সমস্ত ঝোপটার মাথা জুড়ে সাদা সাদা তুলোর মতো রাধালতার ফুল ফুটে রয়েছে।

চলিত রীতির শব্দগুলো হচ্ছে- পুল পেরিয়ে, মধ্য দিয়ে, ভেঙ্গে যেতে লাগল, ফুল ফুটে রয়েছে ইত্যাদি।

উপরের সাধু ও চলিত রীতির অনুচ্ছেদ এ ভাষার উপাদানের সাধু ও চলিত রীতির পার্থক্য নিচে দেখানো হলো।

সাধু ও চলিত রীতির পার্থক্যিঃ

পদ

সাধু

চলিত

বিশেষ্য

মস্তক

মাথা

বিশেষ্য

জুতা

জুতো

বিশেষ্য

তুলা

তুলো

বিশেষণ

শুষ্ক/শুকনা

শুকনো

সর্বনাম

তাঁহারা/উহারা

তাঁরা/ ওরা

সর্বনাম

তাহাকে/উহাকে

তাকে/ওকে

সর্বনাম

তাহার/তাঁহার

তার/তাঁর

ক্রিয়া

করিবার

করবার/করার

ক্রিয়া

পাইয়াছিলেন

পেয়েছিলেন

ক্রিয়া

হইলেন

হলেন

ক্রিয়া

আসিয়া

এসে

ক্রিয়া

হইল

হল/হলো

ক্রিয়া

দেখিয়া

দেখে

ক্রিয়া

করিলেন

করলেন

ক্রিয়া

দেন নাই

দেননি

ক্রিয়া

পার হইয়া

পেরিয়ে

ক্রিয়া

পড়িল

পড়ল/পড়লো

ক্রিয়া

করিয়া

করেঙ

ক্রিয়া

ভাঙ্গিয়া যাইতে লাগিল

ভেঙ্গে যেতে লাগল

ক্রিয়া

ফুটিয়া রহিয়াছে

ফুটে রয়েছে

অব্যয়

পূর্বেই

আগেই

অব্যয়

সহিত

সঙ্গে/সাথে

 


Tags

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !