হার্ট ব্লকের (Heart attack) লক্ষণ কি? বুক ধড়ফড় মানেই কি হার্ট অ্যাটাকের সমস্যা?

0

আজ আমরা বুক ধড়ফড় নিয়ে কথা বলব। অনেকে মনে করেন বুক ধড়ফড় মানেই হার্টের সমস্যা কিন্তু সব ক্ষেত্রে তা নয়। অনেক ক্ষেত্রেই হার্টের সমস্যা হয়, সাধারণত যাদের বুকধরপর নিয়ে বেশি চিন্তা করে থাকেন তাদের সাধারণত হার্ট ছাড়া অন্য সমস্যা রয়েছে। এই ইনফোটিতে আমরা এই বিষয়ে অর্থাৎ হার্ট ব্লকের (Heart attack) লক্ষণ কি? বুক ধড়ফড় মানেই কি হার্ট অ্যাটাকের সমস্যা? সম্পর্কে আলোচনা করবো।

হার্ট ব্লকের (Heart attack) লক্ষণ কি? বুক ধড়ফড় মানেই কি হার্ট অ্যাটাকের সমস্যা?


প্রথমত, সবচেয়ে সাধারণ কারণ আমরা খুঁজে পাই অত্যধিক উদ্বেগ। এই ক্ষেত্রে, কম বয়সী পুরুষদের সাথে মহিলারা সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হন (মহিলাদের হার্ট ব্লকেজের লক্ষণ)। দুশ্চিন্তা ছাড়াও আরও অনেক কারণ রয়েছে। তাদের মধ্যে সাধারণ হল-


হাইপারথাইরয়েড থাইরক্সিসিস। এক্ষেত্রে থাইরয়েডে হরমোন বেশি বেশি নিঃসৃত হলে তাকে থাইরোকোসিস বলে। এক্ষেত্রে বুক ধড়ফড়ের সমস্যা হতে পারে।


এছাড়া বিভিন্ন কারণে আপনি খুব উত্তেজিত, দৌড়াদৌড়ি, খেলাধুলা বা অস্থির থাকতে পারেন তবে কোনো কারণে বুক ধড়ফড় হতে পারে।


এছাড়া হার্টের বিভিন্ন সমস্যায় বুক ধড়ফড় হতে পারে। তাদের মধ্যে একটি হল যে আমরা বলি বিভিন্ন ধরনের এরিথেমা আছে।


বুক ধড়ফড়ের অনেক কারণ আছে যদি হৃৎপিণ্ডের স্পন্দন, যেভাবে সংকোচন ও প্রসারিত হয় তাতে ব্যাঘাত ঘটে।


এছাড়া হার্টে গঠনগত সমস্যা থাকলে, হার্টের ভাল্বে সমস্যা থাকলে বুক ধড়ফড় হতে পারে।


এছাড়াও, আপনার যদি করোনারি হার্ট ডিজিজ বা স্টেম হার্ট ডিজিজ থাকে, যেটি কোনো কারণে হৃদপিণ্ডের রক্তনালীতে ব্লক হয়ে রক্ত ​​সঠিকভাবে সঞ্চালন করতে পারে না, সেক্ষেত্রে অনেক সময় রোগীদের এমন বুক ধড়ফড় হতে পারে।


অনেক ক্ষেত্রে চা-কফি এবং ক্যাফেইন জাতীয় খাবারের অতিরিক্ত সেবনে হৃদস্পন্দন হতে পারে।


হার্ট ব্লকের (Heart attack) লক্ষণ কি?

বুকে চাপ অনুভব করলে অনেকেই গ্যাসের ব্যথার কথা ভেবে হজমের ওষুধ খান। আর তাতেই রোগীর মৃত্যু হতে পারে। তাই অবিলম্বে লক্ষ্য রাখতে হবে যে লক্ষণগুলি হলে। অর্থাৎ হার্ট ব্লকের (Heart attack) লক্ষণগুলো নিম্নরুপ:


*এনজাইনা অর্থাৎ বুকে ব্যথা বা চাপ।


* বুকের ব্যথা চোয়াল, বাহু, পেট বা অন্য কোথাও ছড়িয়ে পড়ে।


* অত্যাধিক ঘামা.


* শ্বাসকষ্ট এবং মাথা ঘোরা শুরু।


* সাধারণ কাজ করার সময় ক্লান্তি বা সিঁড়ি ওঠার সময় শ্বাসকষ্ট।


লক্ষণগুলি স্পষ্ট হলে, রোগীকে অবিলম্বে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে। বাড়িতে হার্ট অ্যাটাকের চিকিৎসা করা যায় না। গোল্ডেন আওয়ারের প্রতিটি মুহূর্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ সময় সঠিক চিকিৎসা রোগীকে মৃত্যুর হাত থেকে ফিরিয়ে আনতে পারে।



হৃদস্পন্দনের বা বুক ধড়ফড় চিকিৎসা কি? 

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এর সিকিৎসা হচ্ছে, এটি প্রতিরোধ করা। উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা, বিষণ্নতায় ভোগেন, তাহলে উদ্বেগের কারণ খুঁজে বের করে চিকিৎসা করা উচিত। অনেক ক্ষেত্রে, ডাক্তারি প্রেসক্রিপশন ছাড়াই শুধুমাত্র সাইকোথেরাপির মাধ্যমে রোগ নিরাময় করা হয়।

এসব রোগীর ক্ষেত্রে খুব কম ক্ষেত্রেই ওষুধের আশ্রয় নিতে হয়। এছাড়া যাদের থাইরয়েডের সমস্যা আছে, তারা যদি থাইরয়েডের চিকিৎসা করান এবং অন্যদের যাদের জ্বর বা গর্ভাবস্থার মতো বিভিন্ন রোগ আছে, তারা যদি ভালো হয়ে যায়, তাহলে দেখা যায় বুক ধড়ফড়ও ভালো হয়ে যায়।

আর যাদের হার্টের সমস্যা আছে তাদের ক্ষেত্রে যাদের রক্তনালীর সমস্যা আছে তাদের ক্ষেত্রে সঠিক চিকিৎসা, এছাড়া অনেক ক্ষেত্রে রক্তনালী বা ভাল্বের সমস্যা ছাড়াও বিভিন্ন কারণে এ ধরনের বুক ধড়ফড় হতে পারে।

সেক্ষেত্রে আমরা ইপি স্টাডিকে বলি ইউট্রোফিক লজিক্যাল স্টাডি যেটা করা প্রয়োজন হতে পারে।

এগুলো ছাড়াও আরেকটি কারণে বুক ধড়ফড় হতে পারে। একে আমরা বলি সুপার ভেন্ট্রিকুলার ক্যাফে কার্ডিয়া। কখনও কখনও সুপার ভেন্ট্রিকুলার ক্যাফে কার্ডিয়া কোনো কারণ ছাড়াই ঘটতে পারে।


এটি একটি গুরুতর রোগ এবং এই ক্ষেত্রে আমাদের অবিলম্বে ডাক্তারের কাছে যেতে হবে। পাড়ার ফার্মেসি থেকে ওষুধ না খেয়ে সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন এবং যেকোনো সমস্যায় চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। 


একজন ডাক্তার মানেই যে ওষুধ, তা কিন্তু নয়. কখনও কখনও সঠিক পরামর্শ সাহায্য করতে পারে আপনাকে।


বুক ধড়ফড় মানেই কি হার্ট অ্যাটাক (Heart attack)?

উপরের আলোচনা থেকে আপনি বুঝতে পেরেছেন যে, বুক ধড়ফড় মানেই হার্ট অ্যাটাক (Heart attack)নয়। তবে বুক ধড়ফড় হার্ট অ্যাটাক (Heart attack) এর কারণেও হতে পারে। আপনাকে মনে রাখতে হবে যে, কি কারণে এমনটি হচ্ছে। যদি হার্ট অ্যাটাকের কারণে বা আপনার দেহে হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ দেখা যায় তাহলে দ্রুত চিকিৎসা সেবা নিতে হবে।


শেষকথাঃ 

হার্ট অ্যাটাক (Heart attack) এর কারণে বুক ধড়ফড় করে সব ক্ষেত্রে তা কিন্তু তা নয়। অন্য কোন কারণেও এমনটি হতে পারে। সাধারণ কারণগুলোর জন্য যদি আপনার বুক ধড়ফড় করে তাহলে ডাক্তারি প্রেসক্রিপশন ছাড়াই শুধুমাত্র সাইকোথেরাপির মাধ্যমে এর থেকে মুক্তি পেতে পারেন। অন্যথায় আপনাকে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

আরো জানুন:




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)


#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !